দল ছাড়াই আগেই 'লিফট' নিয়ে শুভেন্দুকে তুলোধনা অভিষেকের। না না আদনান স্বামীর গান নয়, এ লিফট 'মা মাটি মানুষের' রাজ্যে শাসক দলের অভিকর্ষের বিপরীতে ওঠার লিফট। আর রবিবার  ডায়মন্ড হারবারের সভা থেকেই শুভেন্দু অধিকারীকে নাম না করে ঠুকলেন অভিশেক বন্দ্য়োপাধ্যায়। মনে করালেন 'দলের মা মমতা বন্দ্য়োপধ্যায়'। দলের সঙ্গে 'বিশ্বাসঘাতকতা' মানে কত বড় ঘোরতর অন্য়ায়।  

আরও পড়ুন, 'যারা তাঁদের সঙ্গে আছেন, তাঁরাও তাঁদের সঙ্গে নাই', কৌতুক-হেঁয়ালিতে মমতাকে তোপ দিলীপের

 

 

'অধিকারী' হওয়ার সাধ

রবিবার একই দিনে বাংলার একাধিক জায়গায় চলছে ভোট প্রচারে তৃণমূলের সভা।  মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পর রবিবার মহিষাদলে শুভেন্দুর এটাই প্রথম সভা। ওদিকে অভিশেখ বন্দ্য়োপাধ্যায়েরও সভা ডায়মন্ড হারবারে। রবিবার সারা বাংলার নজরই ছিল  অভিশেখ-শুভেন্দুর সভার দিকে। এদিকে সভা শুরু হতেই বিদায়ী মন্ত্রীকে দিলেন খোঁচা অভিশেখ বন্দ্য়োপাধ্যায়। শুভেন্দু অধিকারীর 'লিফটেও উঠিনি, প্যারাশুটেও নামিনি'-র উত্তরে জনতার প্রতি অভিষেকের পাল্টা আক্রমণ, সভায় সরাসরি প্রশ্ন এখানে কজন লিফটে উঠেছেন,কজন প্যারাশুটে নেমেছেন বলুনতো। তৃণমূল কংগ্রেস মানে মাটির দল, এখানে কেউ লিফটে উপরে উঠলে, তার পতন অবশ্যম্ভাবি।' আর লিফটে না উঠলে আমি অনেক পদের 'অধিকারী' হতে পারতাম।'

 

 

আরও পড়ুন, শুভেন্দু কি বিজেপিতে, কী বার্তা দিলেন দিলীপ

 

'পিসি' যখন 'মা' 

এখানেই শেষ নয়, 'লিফট' ছাড়াই আর এক ধাপ লাপিয়ে অভিষেক বলেন, 'দল মানে মা। এই দলের মা মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। তিনিই দলটাকে সবরকমভাবে বাড়িয়ে তুলেছেন। তাঁর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা অর্থাৎ মায়ের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করা। তা কি কেউ বরদাস্ত করবে, কখনই নয়।' ডায়মন্ড হারবারবাসীকে নিজের প্রশ্নের উত্তর নিজেই বুঝিয়ে খান্ত করলেন।