Asianet News BanglaAsianet News Bangla

তৃণমূল এবার রোদ্দুরের পিছনে, শ্রীরামপুর থানায় অভিযোগ দায়ের

  • চাপ বাড়ল রোদ্দুর রায়ের
  • শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের পর এবার টিএমসিপি
  • রোদ্দুরের বিরুদ্ধে অভিযোগ তৃণমূল ছাত্র পরিষদের
  • কেন থানায় অভিযোগ জানাতে দেরি তৃণমূলের
     
Allegation filed against Roddur Roy in serampore police station by TMCP
Author
Kolkata, First Published Mar 11, 2020, 10:17 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

চাপ বাড়ল রোদ্দুর রায়ের। শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের পর এবার তাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করল তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। যার জেরে জনগণের সঙ্গে এবার রাজনৈতিক নেতাদের প্রবল চাপের মুখে এই রবীন্দ্রসঙ্গীতের প্যারোডি গায়ক।   

পুলিশ ধরার আগেই 'চিরঘুমে' রোদ্দুর, ফেসবুকে ঘুরে বেড়াচ্ছে 'রেস্ট ইন পিস'

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের অভিযোগ, রবীন্দ্রনাথের গান বিকৃত করে গেয়েছেন রোদ্দুর রায়। যা বাঙালির সংস্কৃতির পরিপন্থী। সেই কারণেই এই 'অশ্লীল গায়কের' কড়া শাস্তি চান  তাঁরা। রবীন্দ্রভারতীর ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই রবীন্দ্রসঙ্গীতের অশ্লীল প্যারোডি মেকার রোদ্দুর রায়কে গ্রেফতারের দাবি ওঠে বিভিন্ন মহল থেকে। মঙ্গলবার তাঁকে গ্রেফতারির দাবিতে বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে শিক্ষক ঐক্য মঞ্চ। 

দম থাকলে গ্রেফতার করে দেখা, পুলিশকে চ্যালেঞ্জ রোদ্দুর রায়ের

কিন্তু দেখা যাচ্ছে,গত কদিন ধরেই নিজেকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশকে চ্যালেঞ্জ করেছেন রোদ্দুর রায়। সোশ্য়াল মিডিয়ায় তিনি লিখেছেন, দম থাকলে গ্রেফতার করে দেখা।
এই বলেই থেমে থাকেননি রবীন্দ্রসঙ্গীত বিকৃতির কারিগর। কোনও পোস্টে লিখেছেন, ওপেন চ্যালেঞ্জ। আসুন, গ্রেফতার করুন এবং মোক্ষ আন্দোলনকে হত্যা করুন। যদি পারেন করে দেখান। এখানেই থেমে থাকেনি তার আহ্বান, একটি পোস্টে লিখেছেন- সক্কাল থেকে বসে আছি। একটা পুলিশও ধরতে এল না। 

পরীক্ষা শুরুর এক ঘণ্টা যাওয়া যাবে না শৌচাগারে, নয়া বিধি উচ্চমাধ্যমিকে

এখানেই শেষ হয়নি তাঁর কার্যকলাপ। এবার নাকে তুলো গোজা রোদ্দুরের মৃত্য়ুর ছবি ঘুরে বেড়াচ্ছে  ফেসবুকে। ছবির ওপর লেখা MoxaRIP.ইতিমধ্য়েই তাঁর নতুন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্য়াল মিডিয়ায়। যা নিয়ে শুরু হয়ে গিয়েছে জোর জল্পনা। মঙ্গলবার তার নামে বেলেঘাটা থানায় রবীন্দ্র নজরুল সংস্কৃতি বিকৃত করার অভিযোগ করেছিল শিক্ষক ঐক্য মঞ্চ। এরপর থেকেই আর খবর পাওয়া যাচ্ছিল না রোদ্দুরের। অবশেষে মৌনতা ভেঙে কি ধরা দিলেন তিনি।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট যাচাই করেনি এশিয়ানেট নিউজ বাংলা। যে অ্যাকাউন্ট থেকে এই ছবি পাওয়া গিয়েছে, তা আদৌ রোদ্দুর রায়ের কিনা বা তিনি এই ছবি পোস্ট করেছেন কিনা তা নিয়ে নিশ্চিত নই আমরা। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় তাকে নিয়ে কী হচ্ছে তা তুলে ধরতেই এই রিপোর্ট।

এদিকে শিক্ষক ঐক্য মুক্ত মঞ্চের অভিযোগ, রবীন্দ্রভারতীর ঘটনার পরও সরকারের তরফে রোদ্দুর রায়ের বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। যা দেখে নিজেরাই সেই উদ্য়োগ নিয়েছেন তাঁরা। তাদের বক্তব্য়,গত কয়েকমাস ধরেই সোশ্য়াল  মিডিয়ায় রবীন্দ্রসঙ্গীতের সঙ্গে অশালীন শব্দ ব্য়বহার করছিলেন  ওই গায়ক। যাতে বাংলার সংস্কৃতির অপমান হচ্ছিল বলে তাঁরা মনে করেন। সংগঠনের অভিযোগ, এর ফলে ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের উপর বিরূপ প্রভাব পড়ছিল। সেই কারণেই রোদ্দুর রায়ের নামে অভিযোগ জানানো হল। প্রথমে বেলেঘাটা থানায় অভিযোগ জানানো হলেও সংগঠনের তরফে জানানো হয়েছে যে, আগামীদিনে রাজ্যের প্রত্যেকটি থানায় সংগঠনের তরফে রোদ্দুর রায়ের নামের অভিযোগ জানানো হবে।

কদিন আগেই মেয়েদের খোলা পিঠে  'বসন্ত এসে গেছে' আর তাঁদের সামনে দাঁড়ানো ছেলেদের উন্মুক্ত বুকে অশ্রাব্য গালিগালাজ লক্ষ্য করা যায়। রবীন্দ্রভারতীর মতো ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা-প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের উশৃঙ্খলতা বরদাস্ত করেননি নেটিজেনরা। এরপর ছবিগুলি ভাইরাল হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে সোশ্য়াল মিডিয়ায় নিন্দার ঝড় ওঠে। রবীন্দ্রসঙ্গীত নিয়ে এ ধরনের অশ্লীলতার জন্য রোদদুর রায়ের মতো প্যারোডি সিঙ্গারদের দায়ী করেছে সোশ্যাল মিডিয়া।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios