রাজ্য়ে বিধানসভা নির্বাচনের আগে ফের সারদা, নারদা তদন্ত নিয়ে সরগরম হতে চলেছে রাজ্য়। ইতিমধ্য়েই রাজ্য়ে চিটফান্ডের তদন্তের দায়িত্বে থাকা অফিসারকে বদলি করা হয়েছে। সেই জায়গায় দায়িত্বে আসছেন দিল্লির সিবিআই অফিসার। শোনা যাচ্ছে, শীঘ্রই চিটফান্ড ও নারদা মামলায় একাধিক তৃণমূল নেতাকে ডেকে পাঠাতে পারে সিবিআই।

পাঁচ তৃণমূলে নেতার সম্পত্তির হদিশ পেতে আগেই নথি জমা দিতে বলেছে সিবিআই। যা নিয়ে মুখ খুলেছেন রাজ্য়ের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। কলকাতা পুরসভার পুর প্রশাসক বলেন, নির্বাচনের আগে এরকম আরও অনেক ঘটনা হবে। এটা নতুন কিছু নয়। মানুষ এখন বিষয়টা বুঝে গেছে। যদিও সিবিআই সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্য়ে তথাগত বর্মনের নেতৃত্বে এতদিন সেভাবে  গতি পাচ্ছিল না চিটফান্ড তদন্ত। সেকারণে সারদার তদন্তকারী অফিসার ডিএসপি তথাগত বর্ধনের জায়গায় বসা নো হচ্ছে  দিল্লির এক  অফিসারকে। শোনা যাচ্ছে, অতিরিক্ত পুলাশ সুপার মর্যাদার এক আধিকারিক আসছেন সারদার তদন্তের গতি আনতে।

এছাড়াও খবর, বিহার থেকেও সারদা-রোজভ্যালির তদন্তে নিয়োগ করা হচ্ছে দুই অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মর্যাদার অফিসারকে। এখানেই শেষ নয়,চিটফান্ডের তদন্তে গতি  আনতে ইকোনমিক অফেন্স  উইংয়ে আনা হয়েছে তিন এসপি পদমর্যাদার আধিকারিককে। শীঘ্রই  সারদা, নারদ কাণ্ডে ঝাঁপাবে তারা। এদিকে, নারদ কাণ্ড নিয়ে সিবিআই-এর তৎপরতা সামনে আসতেই মুখ খুলেছেন নারদ কাণ্ডের স্টিং অপারেশনকারী ম্যাথু স্যামুয়েল। এক ভিডিয়ো বার্তায় তিনি বলেছেন, দেরিতে হলেও সিবিআই যে এই বিষয়ে তৎপরতা দেখাচ্ছে তা অভিনন্দনযোগ্য।