ছেলের পর এবার বাবা। জুয়ার আসর থেকে গ্রেফতার করা হল আরসালানের মালিক আখতার পারভেজকে। পানশালায় জুয়ার আসরের বিরুদ্ধে শনিবার অভিযান চালায় কলকাতা পুলিশের বিশেষ দল। সেখানেই পার্ক সার্কাসের পানশালা থেকে গ্রেফতার করা হয় আখতার পারভেজকে। উদ্ধার হয়েছে জুয়ার বোর্ডের ১লক্ষ ৮০ হাজার টাকা। 

পাকা খবরের জন্য ওঁত পেতে বসেছিল গোয়েন্দারা। শনিবার সেই খবর নিশ্চিত হতেই আর দেরি করেনি কলকাতা পুলিশের গুন্ডদমন শাখা। পার্ক সার্কাস, এডেসি বোস রোড, ক্যামাক স্ট্রিটের ফ্রেন্ডস ক্লাবে হানা দিয়ে জুয়ার আসর বন্ধ করে তারা। এই ঘটনায় বিভিন্ন রেস্তরাঁ থেকে অন্তত ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।  রেস্তরাঁগুলি থেকে নগদ টাকা ছাড়াও ডিভিডি রাইটার ছাড়াও ইন্টারনেট রাউটার পাওয়া গেছে। ধৃতদের কাছ থেকে উদ্ধার হয়েছে ৪০০ কম্পিউটার চিপস ছাড়াও কিছু নথিপত্র। এই নথি ঘেটে কে কত টাকা পোকারে বাজি লাগিয়েছে তা জানতে পেরেছে পুলিশ। এমনকী এই জুয়ার ব্যবসায় কোন কোন বিজনেস হাউসের টাকা লাগানো আছে, তারও সন্ধান পেয়েছে তদন্তকারীরা।

পুলিশ জানিয়েছে, উদ্বার হওয়া জুয়ার ৯৪ হাজার ৩০০ টাকা পাওয়া গেছে ক্যামাক স্ট্রিটের ফ্রেন্ডস ক্লাব থেকে। বাকি আরও ৯০হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে এজেসি বোস রোডের লিও ক্লাব থেকে।  পোকারে এই টাকা লাগানো হয়েছিল বলে জানিয়েছে পুলিশ। সম্প্রতি একটি মার্সিডিজ গাড়িতে ধাক্কা মারে আরসালানের মালিক আখতার পারভেজের ছোট ছেলে রাঘিবের একটি জাগুয়ার গাড়ি। ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নাগরিকের মৃত্যু হয়। ওই ঘটনায় আখতার পারভেজের দুই ছেলে আরসালান ও রাঘিব এবং তাঁর শ্যালক তথা আরসালান-রাঘিবের মামা মহম্মদ হামজা গ্রেফতার হয়েছেন। তাঁরা জেল হেফাজতে রয়েছেন। এ বার গ্রেফতার হলেন আরসালান-রাঘিবের বাবা আখতার পারভেজও।