কাটমানি নিয়ে গান বেধেছিলেন তিনি। সেই গান সোশ্যাল মিডিয়ায় আসার পরে রীতিমত ঝড় বয়ে যায়। তীব্র জল্পনা ছড়াতে থাকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অন্যতম প্রিয়পাত্র তথা পরিবর্তনপন্থী বুদ্ধিজীবীদের প্রধান মুখ নচিকেতা চক্রবর্তী এবার দলের বিরুদ্ধে তোপ দাগতে শুরু করেছেন।

 নচিকেতার রেবেল ভাবমূর্তি এবং লকেট চট্টোপাধ্যায় এর মন্তব্য যেন অগ্নিকুন্ডে  ঘৃতাহুতি করেছিল। সুযোগ বুঝে হাত বাড়িয়ে দেন বাবুল সুপ্রিয়ও। নিজের টুইটারে লেখেন, মানুষের মনের কথা গানের মাধ্যমে সকলের সামনে আনার জন্য নচিকেতাকে ধন্যবাদ। 
স্বাভাবিকভাবেই নেটিজেনরা ভাবতে শুরু করেন এবার শুধু সময়ের অপেক্ষা দল বদলাবে নি নচিকেতা চক্রবর্তী।  কিন্তু অবশেষে সকলের ভুল ভাঙালেন নচিকেতা চক্রবর্তী। পরিষ্কার বুঝিয়ে দিলেন দলবদলের তো কোন প্রশ্নই নেই, বরং চাইছেন তৃণমূল সুপ্রিমোর হাত শক্ত করতে। এদিন একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে নচিকেতা চক্রবর্তী মন্তব্য করেন, "নচিকেতা একই আছে বাবুল কি মানে বুঝেছে জানিনা‌। রামকৃষ্ণ মিষ্টান্ন ভান্ডারের দায়িত্ব তো আর রামকৃষ্ণের নয়। আমি এরকম অনেক গান লিখেছি মমতার সততা দেশের কাছে পৌঁছে দিতে চাইছি।"

প্রসঙ্গত কা'মানি কাণ্ডে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মুখ খোলার পর থেকেই বহু রাঘববোয়াল জালে জড়িয়েছে। একের পর এক ন্যক্কারজনক কাণ্ড চোখের সামনে উঠে আসছে।  অন্যদিকে সামাজিক অনাচার, নেতাদের নিয়ে দুর্নীতি নিয়ে গান লেখা নচিকেতার পুরনো অভ্যেস। সরকারি কর্মচারী হোক বা ডাক্তার, দুর্নীতির বিরুদ্ধে বারবার কথা বলেছে তাঁর গিটার এবং কন্ঠ। এবারের ঘটনাটিও তাই। বাবুল, লকেট থুড়়ি বিজেপি ভুল বুঝেছিল।