চিনের আগ্রাসনে সরব না হয়ে উল্টে ভারত-বিরোধী অবস্থান নিয়েছে সিপিএমের মুখপত্র গণশক্তি পত্রিকা। এই অভিযোগ এনে শনিবার গণশক্তি পত্রিকা অফিসের সামনে বিক্ষোভ দেখাল বিজেপির মহিলা মোর্চা। উপস্থিত ছিলেন বিজেপির মহিলা মোর্চার সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। 

এদিন প্রতিবাদ বিক্ষোভে সভানেত্রী বলেন, লাদাখে চিনের  আগ্রাসনের বিরুদ্ধে যখন সারা দেশ  একত্রিত তখন নিজেদের পুরোনো অবস্থানেই অনড় রয়েছে সিপিএম। আগের মতো এখনও চিনের চেয়ারম্যান তাদের চেয়ারম্যান। গণশক্তি বলছে,ভারতীয় সেনা  লাদাখে এলএসি অতিক্রম করেছে। দেশে বসে গণশক্তির এই  ভারত-বিরোধী অবস্থানের তীব্র  প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তারা। কিন্তু এই প্রতিবাদ দেখাতে গেলেও মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়ের পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে। 

জানা গিয়েছে, এদিন মহিলা মোর্চা সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল সহ প্রতিবাদে বিজেপির ৪২জন কর্মীকে আটক করা হয়। গণশক্তির অফিস থেকে তাদের লালবাজারে নিয়ে যায় পুলিশ। এদিন বিজেপি মহিলা মোর্চা বেলা একটা কর্মসূচি  ছিল। শনিবার দুপুরে প্রথমে চিনের প্রেসিডেন্টের কুশপুতুল দাহ করে  বিজেপির  মহিলা মোর্চা। 

গালওয়ান উপত্যকায় চিনা বাহিনীর আক্রমণে নিহত হয়েছেন ২০ ভারতীয় সেনাকর্মী। চিনের সরকারি মুখপত্র গ্লোবাল টাইমস -এর খবর অনুযায়ী ভারতের জওয়ানদের সঙ্গে সংঘর্ষে চিনেরও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জানা গিয়েছে, ভারতীয় জওয়ানদের পরাক্রমে চিনের ৩৫ জন সেনা মারা গেছে। আহত হয়েছে আরও ১০ জন। ইতিমধ্যেই একাধিক ফাইটার জেট মোতায়েন করা হয়েছে সীমান্তে। 

সীমান্তে উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ে দিল্লিতে দফায় দফায় চলছে বৈঠক। শুক্রবার লাদাখ নিয়ে আলোচনায় সর্বদলের ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। চিনের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে, তা নিয়েই এই বৈঠক ছিল। সেই বৈঠকে উপস্থিতি ছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।