পাম অ্যাভিনিউয়ের ফ্ল্য়াটে ফিরলেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। তবে বাড়ি ফিরলেও সেখানেই তাঁর যাবতীয় চিকিৎসা চলবে। মূলত প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর ইচ্ছের কথা মাথায় রেখেই তাঁকে ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। 

গত শুক্রবার তীব্র শ্বাসকষ্ট নিয়ে দক্ষিণ কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে। তাঁর ফুসফুসে সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। এছাড়াও রক্তচাপ এবং শরীরে রক্তের পরিমাণও কম ছিল। যদিও, মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে চিকিৎসা শুরু হওয়ার পরে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক অবস্থা অনেকটাই স্থিতিশীল হয়। তাঁর রক্তচাপ যেমন বেড়েছে, তেমনই রক্তাল্পতাও কমেছে। এর পাশাপাশি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে ফুসফুসের সংক্রমণ। একটু সুস্থ হওয়ার পর থেকেই বাড়ি যাওয়ার জন্য উদগ্রীব হয়ে ওঠেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি চাইছিলেন, হাসপাতালে যে চিকিৎসা চলছে তা বাড়িতেই হোক। 

এ দিন বিকেল তিনটে নাগাদ বাড়ি ফেরেন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। এখন তাঁর যা শারীরিক অবস্থা, তাতে সবসময় তাঁকে অক্সিজেন দিতে হবে। এ ছাড়াও চলবে নেবুলাইজার, বাই প্যাপ। এর পাশাপাশি চেস্ট ফিজিওথেরাপিও করতে হবে। বাড়িতেই আপাতত এই সমস্ত ব্যবস্থা করা হবে। চিকিৎসক তথা সিপিএম নেতা ফুয়াদ হালিম এবং অন্য আরও একজন চিকিৎসক সবসময় তাঁর শরীরের উপর নজর রাখবেন।