আমূল বদলে গেল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকস্তরে প্রবেশিকা পরীক্ষা নিয়মকানুন। ২০১‌৯ সাল থেকে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর স্তরে অনলাইনে প্রবেশিকা পরীক্ষা হবে। সোমবার সাংবাদিক সম্মেলন করে এমন কথাই জানালেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য সোনালী চক্রবর্তী বন্দ্যোপাধ্যায়। সোনালীদেবী জানাচ্ছেন, এবার থেকে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ৬৬ বিভাগেই অ্যাডমিশনের জন্য পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে। তবে কিছু কিছু বিভাগের ক্ষেত্রে পরীক্ষা হবে একত্রে। পরীক্ষার ক্ষেত্রে সর্বত্রই অনলাইন পদ্ধতি বেছে নেওয়া হচ্ছে। এমসিকিউ পদ্ধতিতে পরীক্ষা নেওয়া হবে ছাত্রছাত্রীদের। এক ঘন্টা সময়সীমা ধরে পরীক্ষা দিতে হবে।  এক্ষেত্রে মোট ৫০ টি প্রশ্ন থাকবে এবং পূর্ণমান হবে ১০০।

আরও পড়ুনঃ কলকাতা থেকে ৯০ মিনিট, এই উইকেন্ডেই চলে যান দিনেমারদের 'দেশে'

এই অ্যাডমিশন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ছাত্রছাত্রীরা জানতে পারবেন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে। ইতিমধ্যেই আবেদনকারীদের জন্য হেলপ ডেস্ক নম্বর এবং ইমেইল আইডি দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটেই শেয়ার করা হয়েছে অ্যাডমিশানের নির্ঘণ্ট।‌  সবচেয়ে আকর্ষণীয় ব্যাপার, পরীক্ষা দেওয়ার দিনই  বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পরীক্ষার্থী  ছাত্রছাত্রীরা জানতে পারবেন তাঁরা কত নম্বর পেয়েছেন। পরীক্ষার দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে মেধা তালিকাও প্রকাশ করবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বলাই বাহুল্য রাজ্যে প্রথম কোনও বিশ্ববিদ্যালয় এই পদ্ধতি নিয়ে এল।এই পদ্ধতিতে পরীক্ষাগ্রহণ অনেক মসৃণ ও কম সময়ের হবে বলে দাবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের।

সাংবাদিক সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এদিন জানান কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ইন্ডিয়া টুডে নামক সংবাদমাধ্যমের বিচারে ভারতবর্ষে প্রথম স্থান অধিকার করেছে। রাজ্য প্রথম স্থান রয়েছে তাদের। এই অবস্থায় দাঁড়িয়ে নিজের সুনাম রক্ষা করতে ভর্তি পদ্ধতিতে স্বচ্ছতা আনতে চাইছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়।