রাজ্য গোয়েন্দা বিভাগের সদর দফতর। আর সেখানেই সিআইডি প্রধান রাজীব কুমারের খোঁজে হানা দিলেন সিবিআই গোয়েন্দারা। শুক্রবারের পরে শনিবারও সকাল থেকে রাজীব কুমারের খোঁজে হন্যে হয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন সিবিআই গোয়েন্দারা। 

সূত্রের খবর অনুযায়ী, শুক্রবার রাতে উত্তরপ্রদেশে রাজীব কুমারের বাড়িতেও হানা দেয় সিবিআই-এর একটি দল। এর পাশাপাশি এ দিন সকালে ভবানী ভবনে হানা দিয়ে রাজীব কুমারের ব্যক্তিগত সচিবের ঘরে তল্লাশি চালান সিবিআই গোয়েন্দারা। বেশ কিছুক্ষণ তল্লাশি চালানোর পরে অবশ্য ভবানী ভবন থেকে বেরিয়ে যান সিবিআই কর্তারা। রাজীব কুমারের সন্ধানে ভবানী ভবনে বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় বলেও খবর। মোট পাঁচজনের একটি দল এ দিন ভবানী ভবনে রাজীবের খোঁজে তল্লাশি চালান। 

আরও পড়ুন- রাজীবের খোঁজে বিষ্ণুপুরের রিসর্টে পুলিশ, স্ত্রীর থেকেও হদিশ পাওয়ার চেষ্টা

ভবানি ভবন ছাড়াও লেকটাউন, দক্ষিণ চব্বিশ পরগণার বিভিন্ন জায়গায় রাজীব কুমারের খোঁজে টানা তল্লাশি চালিয়ে যাচ্ছে সিবিআই। আইপিএস অফিসারকে যে কোনও মূল্যে হাতে পেতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। 

অন্যদিকে রাজীব কুমারের সম্পর্কে তথ্য জানতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকেও চিঠি দিয়েছে সিবিআই। লোকসভা ভোটের আগে রাজীব কুমারকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে রিপোর্ট করতে বলা হয়েছিল। এর পর রাজীব যখন ভোট মেটার পরে পশ্চিমবঙ্গে ফিরে আসেন, তখন তাঁকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক রিলিজ দিয়েছিল কি না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে সিবিআই- এর তরফে।  

এ দিকে এ দিনই আলিপুর আদালতে রাজীব কুমারের আগাম জামিনের আবেদনের শুনানি হওয়ার কথা। এর আগে আলিপুর আদালত জানিয়েছিল, রাজীবকে ধরার জন্য সিবিআই-এর গ্রেফতারি পরোয়ানার  প্রয়োজন নেই।