চিনাদের মুখে এবার শোনা গেল 'ভারত মাতা কি জয়' ও 'জয় হিন্দ' স্লোগান। এরা সবাই টাংড়ার বাসিন্দা, বংশ পরম্পরায় তারা ভারতে বসবাস করছেন। তাই চিনি নয় নিজেকে ভারতীয় বলে মনে করেন তারা। শনিবার চিনের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সোচ্চার হলেন চিনা মুলোকের এই বাসিন্দারা। তারা জানিয়েছেন, নিজেকে চিনের নামের সঙ্গে যুক্ত করতে দ্বিধা হচ্ছে, যে ভাবে চিনের সেনা ভারতীয় জওয়ানদের উপরে আক্রমণ করেছেন তার কঠোর নিন্দা জানালেন টাংরার চিনা বাসিন্দারা। 

এদিন কলকাতায় চিনের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়ে তারা জানান, দীর্ঘদিন ধরে ভারতে আছেন। এখন তারা একশো শতাংশ ভারতীয়। এদিন ভারতীয় পতাকা হাতে নিয়ে 'জয় হিন্দ', বন্দে মাতরম বলে নিজেদের ভারতীয় হিসাবে গন্য করালেন তারা। 

গালওয়ান উপত্যকায় চিনা বাহিনীর আক্রমণে নিহত হয়েছেন ২০ ভারতীয় সেনাকর্মী। চিনের সরকারি মুখপত্র গ্লোবাল টাইমস -এর খবর অনুযায়ী ভারতের জওয়ানদের সঙ্গে সংঘর্ষে চিনেরও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। জানা গিয়েছে, ভারতীয় জওয়ানদের পরাক্রমে চিনের ৩৫ জন সেনা মারা গেছে। আহত হয়েছে আরও ১০ জন। ইতিমধ্যেই একাধিক ফাইটার জেট মোতায়েন করা হয়েছে সীমান্তে। 

সীমান্তে উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ে দিল্লিতে দফায় দফায় চলছে বৈঠক। শুক্রবার লাদাখ নিয়ে আলোচনায় সর্বদলের ডাক দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। চিনের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নেওয়া যেতে পারে, তা নিয়েই এই বৈঠক ছিল। সেই বৈঠকে উপস্থিতি ছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।