Asianet News BanglaAsianet News Bangla

এয়ারপোর্টেই উপসর্গ ফাঁস, পরামর্শ না মেনে শহরে দেদার ঘুরে বেড়ান করোনা আক্রান্ত তরুণ

 

  • এয়ারপোর্টে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ে তাঁকে আইডি-তে ভর্তির পরামর্শ দেওয়া হয়
  • কিন্তু এরপরও  শপিংমল-ক্লাবে ঘুরে বেড়ান করোনায় আক্রান্ত তরুণ 
  • সোমবার মায়ের সঙ্গে নবান্ন-মহাকরণ সবজায়গায় ঘুরে বেড়ান তিনি 
  • নিষেধ অমান্য় করে জানায়, সে ভর্তি কোনও হাসাপাতালে ভর্তি হবে না 
Coronavirus update in affected youth in Kolkata
Author
Kolkata, First Published Mar 18, 2020, 6:26 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বিদেশ থেকে ফিরে নিষেধ অবজ্ঞা করেই নবান্ন-শপিংমল-ক্লাবে ঘুরে বেড়ান করোনায় আক্রান্ত তরুণ। সূত্রের খবর, রবিবার লন্ডন ফেরার পর গত মঙ্গলবার, ১৭ তারিখ, বেলেঘাটা আইডি-তে ধরা পড়ে ওই তরুণের শরীরে নোভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রয়েছে। তারপরই ওই যুবককে বেলেঘাটা আইডি-র আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করে নেওয়া হয়। একইসঙ্গে  যাদের সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকেও কড়া পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকেরা৷ সংক্রামিত তরুণের মা,বাবা এবং গাড়িচালককে  আইডি হাসপাতালের কোয়েরান্টিনে রাখা হয়েছে৷

আরও পড়ুন, করোনায় আক্রান্ত আমলার ছেলে, রাইটার্সে সিল করা হল তাঁর ঘর


 সূত্রের খবর, বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে ওই তরুণের অবস্থা এখন অনেকটাই ঠিকঠাক। অপরদিকে, পরিবারের লোকেদের লালরসের নমুনা সংগ্রহ করে বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালের তরফে পুনে নাইসেডে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। যার রিপোর্ট আজ বুধবার পাওয়া যাবে। কিন্তু অপরদিকে রীতিমত ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন ওই তরুণের আবাসনের বাসিন্দারা। তাঁদের অভিযোগ, লন্ডন থেকে ফেরার পর চৃড়ান্ত দায়িত্বজ্ঞানহীনের মতো আচরণ করেছেন ওই তরুণ ও তাঁর পরিবার।

আরও পড়ুন, আসল বলে নকল মাস্ক বিক্রি, কীভাবে চলছে জাল কারবার

 জানা গিয়েছে, রবিবার এয়ারপোর্টে থার্মাল স্ক্রিনিংয়ের পর তাঁকে বেলেঘাটা আইডি-তে যাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হলেও বিমানবন্দর থেকে সোজা মায়ের সঙ্গে বাড়ি চলে আসেন। তারপর সোমবার, ১৬ তারিখ, সকালে আবাসনে বেরিয়ে সবার সঙ্গে কথা বলেন। বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দেন। সেখান থেকে বাড়ির লোকের সঙ্গে এম আর বাঙুর হাসপাতালে যান। অভিযোগ, মায়ের প্রভাব খাটিয়ে জোর করে এম আর বাঙুর হাসপাতালে চিকিৎসক দেখান তিনি। সেখান থেকেও তাঁকেও বেলেঘাটা আইডি-তে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। কিন্তু ওই তরুণ নিষেধ অমান্য় করে জানায়, সে ভর্তি কোনও হাসাপাতালে ভর্তি হবে না। এরপরই মায়ের সঙ্গে নবান্নে আসেন ওই তরুণ। নবান্নে ঘোরাফেরা করেন। এমনকি তারপর মায়ের সঙ্গে মহাকরণেও যান। তাই এই মুহূর্তে সেই সব জায়গাগুলিই খতিয়ে দেখছে রাজ্য় স্বাস্থ্য় দফতর। 

আরও পড়ুন, ইরানের পর এবার কুয়ালালামপুর, কলকাতার ছাত্রীর কাতর আবেদনের ভিডিও হল ভাইরাল
 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios