প্রতিবছরই ১ জানুয়ারীর দিন কল্পতরু উৎসব পালন করা হয় মহা ধুমধামে। এদিন ভোর রাত থেকেই দর্শণার্থীদের ভিড় জমতে থাকে মন্দিরে মন্দিরে। যার মধ্যে অন্যতম হল দক্ষিণেশ্বরের মা ভবতারিণীর মন্দির। মাঝ রাত থেকেই পড়ে যায় লাইন। দীর্ঘ পাঁচ থেকে ছয় ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থাকার পরই দর্শণ মেলে মাতৃপ্রতিমার। কিন্তু ২০২১ সালের প্রথম দিনের ছবিটা যাবে পাল্টে। 

করোনার সংক্রমণ রুখতে বন্ধ রাখা হচ্ছে দর্শণার্থীদের জন্য মন্দির। মন্দিরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে, বিপুল সংখ্যক মানুষের ভিড় সামলানো এই পরিস্থিতিতে কঠিন। সকলকে স্যানিটাইজ করে ঢোকানো, সব দিকে নজর রাখা সম্ভবপর নয়। তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে মায়ের পুজো বন্ধ থাকবে না। মন্দিরের ভেতরে চলবে পুজো, হবে হোমও। একই কারণ বশত বন্ধ রাখা হচ্ছে কাশীপুর উদ্বানবাটিও। 

প্রতিবছর বালি ব্রিজে চলে যায় লাইন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত চলে পুজো। তাই আগে থেকেই এবার নোটিস জারি করে সকলকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে কল্পতরু উৎসব এবার হবে না। মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ঠেকানোটাই এখন প্রধান বিষয়। বিপুল মানুষের উপচে পড়া ভিড়, লাইনে কোনও মতেই ডিস্টেন্স মেনটেইন করা সম্ভবপর নয়। তাই এবার বন্ধই থাকছে দক্ষিণেশ্বরের প্রবেশ দ্বার।