এবার যোগ দিবসেও দিলীপ ঘোষের মুখে হিংসার কথা। বিজেপির রাজ্য় সভাপতি বলেন, মন্ত্র জপ করে হিংসা ঠেকানো যায় না। হিংসা রুখতে পাল্টা হিংসার পথে নামতে হয়, নতুবা সেই ব্যক্তিকে কাপুরুষ বলে মনে করে দুনিয়া। 

রবিবার বিশ্ব যোগ দিবস। এদিন সকাল সকাল স্থানীয় বাসিন্দা ও প্রাতঃভ্রমণে সঙ্গীদের নিয়ে নিউটাউনের ইকোপার্ক-এর আইফেল টাওয়ারের সামনে যোগ অনুষ্ঠানে যোগ দেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানেই সবাইকে নিয়ে মন্ত্রপাঠ ও যোগের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। সেখানে বিজেপির মেদিনীপুরের সাংসদ বলেন, মন্ত্র জপ করলেই যদি সব কাজ হয়ে যেত তাহলে শ্রীকৃষ্ণ যুদ্ধের  পথে হাঁটতেন না। 

এদিন লাদাখে চিনের আগ্রাসন প্রসঙ্গেও সরব হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। তিনি বলেন, ভারত চিনের বিরুদ্ধে পাল্টা করছে বলেই সব ঠিক দিকে এগোচ্ছে। এখন হিন্দি-চিনি ভাই ভাই বললে ভারতের আরও জায়গায় ঢুকে পড়বে চিন। একমাত্র কাপুরুষই হিংসার পাল্টা হিংসা থেকে ভয় পায়।

সম্প্রতি 'বদলা চাই-বদল চাই' লেখা দিলীপ ঘোষের পোস্টার ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় জোর বিতর্ক শুরু হয়েছে। এই মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক মহলে জোর জল্পনা তার পরিপ্রেক্ষিতে রাজনৈতিক মহলে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন অনেকেই। সেই ঘটনা নিয়ে দিলীপ ঘোষকে জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, হিংসার প্রতিরোধ যদি কেউ ভাবে মন্ত্র জপ করে সমস্যা সমাধান হবে তাহলে সে ভুল করবে। মনে রাখতে হবে শ্রীকৃষ্ণ যুদ্ধ করে জয়লাভ করেছিল।