অতি সঙ্কটজনক প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ভেন্টিলেশনে রয়েছেন তিনি। হাসপাতাল সূত্রের খবর, গভীর রাতে জ্ঞান ফিরেছে তাঁর। এই মুহূর্তে তাঁকে ঘুম পাড়িয়ে রাখা হয়েছে। সকাল ১০ টায় বসবে মেডিক্য়াল বোর্ড।

 

ভেন্টিলেশনের মাত্রা ধীরে ধীরে কমানো হবে


হাসপাতাল সূত্রে খবর, মেডিক্য়াল বোর্ড বসার পরেই নেওয়া পরবর্তী পদক্ষেপ। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের ভেন্টিলেশনের মাত্রা ধীরে ধীরে কমানো হবে। তাঁৎ রিপোর্টে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ ৪২ এবং শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা ৬২। এবং কোভিড টেস্টের রেজাল্ট নেগেটিভ।  উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন  প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। কিন্তু বাইরের কাউকেই তা বুঝতে দেন। কয়েকবছর আগে অসুস্থ হওয়ার পর তার ছবি প্রকাশ্য়ে আসায় চমকে উঠেছিল বাংলা। অসুস্থাতায় সেবার মুখের রঙ পর্যন্ত বদলে গিয়েছিল। তাঁকে আসলে এ অবস্থায় কখনও দেখেনি রাজ্যবাসী। চোখ ভিজেগিয়েছিল অনুগামীদেরও। সম্প্রতি তাঁর শারীরিক অবস্থা কথা খোঁজ নিতে তাঁর বাড়িতে সস্ত্রীক গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য ভর্তি হবার পর নিজে গিয়ে দেখেও এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী


এদিকে বুধবার দুপুরে নতুন করে শ্বাসকষ্ট বাড়ায় কোনও রমকম ঝুঁকি না নিয়ে ব্যক্তিগত চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে আলিপুরের উডল্যান্ড নার্সিংহোমে ভর্তি করা হয়েছে। আপাতত তাঁকে আইসিইউতে রাখা হয়েছে। বুধবার সেখানে ভর্তি করানোর পর দেখা যায়, অক্সিজেনের মাত্রা অনেকটাই কম ছিল। উল্লেখ্য, এই দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার সময় প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের শারীরিক অবস্থার খবর নিয়ে গিয়েছেন রাজ্যের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। এবং ভর্তি হবার পর নিজে গিয়ে দেখেও এসেছেন মুখ্যমন্ত্রী।