পুরসভায় নির্বাচন ছাড়া প্রশাসক বসানো নিয়ে আপত্তি তুলেছিল বিরোধীরা। যা নিয়ে শেষমেশ মামলা হয় হাইকোর্টে। অবশেষে সেই মামলায় জয় পেয়েছে রাজ্য় সরকার। য়া নিয়ে মুখ খুললেন রাজ্য়ের পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। 

আজ সল্টলেক উন্নয়ন ভবনে পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম সাংবাদিকদের বলেন, কলকাতা পৌরনিগমের প্রশাসন বসানো নিয়ে আপত্তি জানিয়ে যে মামলাটি করা হয়েছিল,আজ খারিজ করে দেয় কলকাতা হাইকোর্ট। এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানান কলকাতা পৌরনিগমের প্রশাসন ফিরহাদ হাকিম। সল্টলেকের উন্নয়ন ভবনে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, করোনা এবং আমফান পরবর্তী সময়ে কাজ চালানোর জন্য প্রশাসন বসানো হয়। এই পদ অলংকার বা অহংকার এর জন্য নয়। মানুষকে বিপদে ফেলার জন্য় যারা হাইকোর্টে গিয়েছিলেন, এবার তাদের পরাজয় হয়েছে।

সম্প্রতি রাজ্যের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের আয় ব্যয়ের হিসেব চেয়ে নোটিশ পাঠিয়েছে ইডি। এ প্রসঙ্গে এদিন ফিরহাদ হাকিম বলেন, ইডি আয়-ব্যয় এবং সম্পত্তির হিসাব চেয়ে পাঠিয়েছে। আমি তাদের উত্তর দিয়েছি। ২১ এর আগে নির্বাচনের আগে এসব হবে। বিজেপি সমস্ত প্রতিষ্ঠানগুলির রাজনীতিকরণ করে দিয়েছে। নির্বাচন আসবে যাবে। সরকার ভাঙবে গড়বে। কিন্তু সংস্থাগুলির এভাবে রাজনীতিকরণ করাটা ঠিক নয়। এতে সংস্থার প্রতিষ্ঠায় দাগ লাগে।

রাজ্যপালের ট্যুইট নিয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, এই পদ কাজ করার জন্য। অথচ রাজ্যপাল রাজনীতি করছেন টুইট করে বিরোধিতা করছেন। মিথ্যাচার বাংলার মানুষ মেনে নেবে না। যারা মানুষকে বিপদে ফেলার জন্য হাইকোর্টে গেছিল তাদের পরাজয় হয়েছে, মানুষের জয় হয়েছে।