বিধানসভা ভোট হতে এখনও প্রায় সাত মাস। তার আগে জোরকদমে প্রচার শুরু করেছে শাসকদল তৃণমূল। অন্যদিকে, বিরোধীরাও কোমর বেঁধে নেমেছে তাঁদের প্রচারে। বিজেপি-তৃণমূল রাজনৈতির তরজা শুরু হয়েছে। নিজেদের দলে সমর্থনে নয়া রাজনৈতিক কর্মসূচি নিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।'চলুন মাস্টারমশাই ঘুরি বাড়ি বাড়ি', ভোটের আগে তৃণমূলের নয়া কর্মসূচিতে প্রচারে নামলেন কলকাতার পুরসপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিম।

আরও পড়ুন-আজ 'মালদা জেলা' নিয়ে তৃণমূল ভবনে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক, কতটা প্রভাব ফেলবে 'শুভেন্দু' ইস্যু

''তৃণমূল কংগ্রেসকে শেষ করার স্বপ্ন কোনদিন সফল হবে না বিজেপির। তৃণমূল ছিল, আছে, থাকবে বিজেপির এই স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যাবে''। শনিবার তৃণমূল কংগ্রেসের দলীয় কর্মসূচিতে গিয়ে এই কথা বললেন বর্ষিয়ান তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ফিরহাদ হাকিম। তিনি বলেন, ''তৃণমূল মানুষের দল। বাংলার মাটিতে আন্দোলন করে এই রাজনৈতিক দলের জন্ম হয়েছে। বিজেপির মত ইমপোর্টেড দল তৃণমূল কংগ্রেস নয়''। আগামী দিনে মানুষ আবার তৃণমূল কংগ্রেসকে নির্বাচিত করবেন বলে দাবি করেন ফিরহাদ হাকিম। 

একইসঙ্গে এ দিন বিজেপি-কে কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে ফিরহাদ হাকিম বলেন, ''ঝাল মুড়ির মতো যে আসছে তাকেই দলে নিয়ে নিচ্ছে বিজেপি। বিজেপির কোন নীতি আদর্শ নেই। যে সমস্ত রাজনৈতিক নেতার কোন আদর্শ নেই তারাই বিজেপিতে যোগদান করছে। তৃণমূলের একটা আদর্শ রয়েছে, নীতি রয়েছে। সেই নীতি আদর্শ মেনে তৃণমূল পরিচালিত হয়''। 

আরও পড়ুন-সল্টলেকে কয়লা পাচার কাণ্ডে CBI হানা, অভিযুক্ত অনুপ মাঝির বাড়িতে জোর তল্লাশি

প্রসঙ্গত এদিন, 'চলুন মাস্টারমশাই ঘুরি বাড়ি বাড়ি' নামে একটি বিশেষ প্রচার অভিযান এর সূচনা করল তৃণমূল কংগ্রেস। রাজ্যজুড়ে এই প্রচার অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন ফিরহাদ হাকিম। কলকাতার চেতলায় এই অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে প্রচার অভিযানের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন তিনি। রাজ্য সরকারের যে সমস্ত প্রকল্প রয়েছে সেই প্রকল্পের মাধ্যমে সাধারণ মানুষ কি কি সুবিধা পাবেন? কোথা থেকে সেই সুবিধা পাবেন? ইত্যাদি একাধিক বিষয়ে সম্বলিত একটি বুকলেট প্রকাশ করা হয়েছে। সেই বুকলেট নিয়ে বাড়ি বাড়ি যাবে তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী এবং সমর্থকরা। এর প্রচারে যারা থাকবেন তারা মূলত শিক্ষক।