করোনা আবহের আতঙ্কের কারণে বন্ধ আদালতের কাজকর্ম। নাজেহাল বিচারপ্রার্থীরা। যেসব গুরুত্বপূর্ণ মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার কথা ছিল আদালতের কাজকর্ম বন্ধ থাকার কারণে সেগুলি পিছিয়ে গিয়েছে। কিছু কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলা ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সম্পন্ন করেছেন বিচারপতিরা। করোনা আবহের মধ্য়েও সুপ্রিম কোর্টে এরকম একাধিক মামলার শুনানি চলছে। কিন্তু, কিছু কিছু গুরুত্বপূর্ণ মামলার ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়ছেন বিচারপ্রার্থীরা। পশ্চিমবঙ্গেও এর সংখ্য়া নেহাতই কম নয়। করোনার উদ্বেগজনক পরিস্থিতি বিচারব্যবস্থায় ভার্চুয়াল পদ্ধতিকেই মান্যতা দিচ্ছেন বিচারপতিরা। সেকারণে এই প্রথমবার পশ্চিমবঙ্গে শুরু হতে চলেছে ই-আদালত।

আগামী ২২ অগাস্ট, শনিবার বেলা সাড়ে দশটায় ই-লোক আদালতের উদ্বোধন হবে। কলকাতা লিগ্যাল সার্ভিস কমিটির উদ্য়োগে রাজ্য়ে প্রথমবার ই-লোক আদালত খুলতে চলেছে। উপস্থিত থাকবেন হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সহ অন্য়ান্য বিচারপতিরা। হাইকোর্টের বিচারপতিদের আমন্ত্রণ জানিয়েছে কলকাতা লিগ্যাল সার্ভিস কমিটি।

২২ অগাস্ট ই-লোক আদালতের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি বি. রাধাকৃষ্ণণন, বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্য়োপাধ্য়ায়, বিচারপতি সৌমেন সেন এবং কলকাতা লিগ্যাল সার্ভিস কমিটির চেয়ারপার্সন অজয় কুমার মুখোপাধ্য়ায়।

করোনা মহামারির কারণে কাজকর্মে বাধা পড়েছে রাজ্যের জেলা আদালত থেকে শুরু করে কলকাতা হাইকোর্টেও। দীর্ঘ দিনের পড়ে থাকা মামলা গুলির নিষ্পত্তি না হওয়ায় সমস্যা বাড়ছে। আদালতে এসেও ফিরে যেতে হচ্ছে বিচারপ্রার্থীদের। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যে প্রথমবার ই-লোক আদালতের উদ্বোধনকে স্বাগত জানিয়েছে বিচারপ্রার্থী থেকে বিভিন্ন আদালতের বিচারকরা।