হরিদেবপুরে প্রকাশ্য রাস্তায় প্রাক্তণ পুলিশ কর্তা  শিশির কুমার বন্দোপাধ্যায়ের মেয়ে শ্রাবন্তীর উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা। গুরুতর আহত শ্রাবন্তী দেবী হাসপাতালে চিকিৎসা করার পর হরিদেবপুর থানায় এক প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানালেন।

 

আরও পড়ুন, 'বাইক ট্য়াক্সিতে তরুণীকে অশ্লীল প্রশ্ন' থেকে নগ্ন ভিডিও প্রকাশ, রইল 'রাতের কলকাতা'র ৫ কাহন


শ্রাবন্তীর উপর ধারালো অস্ত্র নিয়ে হামলা

বুধবার সন্ধ্যায় পাড়ার মধ্যে হরিদেবপুর থানা এলাকার যদুনাথ উকিল রোডে কুকুরদের খাবার দেওয়ার জন্য বেরিয়ে ছিলেন পেশায় অধ্যাপিকা শ্রাবন্তী বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিবেশীকে চিনতে পারলেও অন্ধকারের জন্য প্রতিবেশীর সঙ্গে যে অন্য মহিলা এসেছিল তাকে চিনতে পারেনি শ্রাবন্তী দেবী। এই সময় তিনি দেখেন তার বাবা ওই রাস্তা দিয়েই ফিরছেন চিৎকার শুনে বাবা এগিয়ে আসেন ততক্ষণে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। হরিদেবপুর থানায় মহিলা অভিযোগ দায়ের করেছেন ঘটনার তদন্তে হরিদেবপুর থানার পুলিশ। 

 

আরও পড়ুন, ২ স্ত্রীর সঙ্গে লাইভ স্ট্রীমিং চলাকালীন সঙ্গম, পুলিশের জালে গুণধর যুবক

 

মহিলাকে কেস তুলে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি

প্রাক্তন পুলিশ কর্তার মেয়ে জানান যে, তাদের বাড়ি প্রমোটিং করার জন্য বেশ কিছুদিন ধরে এলাকার কিছু মানুষ চাপ দিচ্ছিল। কিন্তু তারা বারণ করে দেয় তাদের বাড়ি প্রমোটিং-এ দেওয়া হবে না। এরপরও উৎপীড়ন করলে তাদের বিরুদ্ধে এর আগে দুইবার অভিযোগ করা হয় থানায়, কিন্তু পুলিশ কোনও পদক্ষেপ নেয়নি, এমনই অভিযোগ মহিলার। ওই মহিলাকে বারবার কেস তুলে নেওয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করতে থাকে বলে অভিযোগ।  যেহেতু শ্রাবন্তী দেবী কেস তোলেননি তার জন্যই এই আক্রমণ বলে মনে করছেন শ্রাবন্তী দেবী ।