কলকাতা মেট্রো থেকে উঠে যাচ্ছে ই-পাস। সোমবার ১৮ জানুয়ারি থেকে আর লাগবে না ই পাস। পাশপাশি কোভিডে আর্থিক ধাক্কা সামলাতে বিজ্ঞাপনী খাতে আয় বাড়ানোর জন্য উদ্য়োগ নিল কলকাতা মেট্রো। মেট্রো সূত্রের খবর, স্মার্ট কার্ডের পরে এবার বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্য মেট্রো স্টেশনের নাম এবং টোকেন ভাড়া দিতে চলেছে মেট্রো কর্তৃপক্ষ। 

কলকাতা মেট্রো রেল সূত্রে খবর,   যে সফটওয়ার সংস্থাকে মেট্রোর ই-পাস তৈরির দায়িত্বে দেওয়া হয়েছিল, সেই সংস্থার সঙ্গে পাস তৈরির চুক্তির নবীকরণ হয়নি। শীঘ্রই বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে বলে সোমবার ১৮ জানুয়ারি থেকে আর লাগবে না ই পাস যাত্রীদের। স্মার্ট কার্ড দিয়েই এখন দিনের যে কোনও সময় মেট্রোতে যাতায়াত করা যাবে। যদিও টোকেনেক সুবিধা এখনই চালু করতে নারাজ মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

 অপরদিকে, লকডাউনের জেরে এক ধাক্কায় অনেকটাই আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে মেট্রো রেল। তার উপর কোভিড বিধি-সামাজিক দূরত্ব মানতে গিয়ে বেড়েছে ব্যয়। মেট্রোর অপারেটিং রেশিও এখন ২২৫, অর্থাৎ ১০০ টাকা আয় করতে খরচ হচ্ছে ২২৫ টাকা। এদিকে মেট্রো রেলে পণ্য পরিবহণেও আয়ের সুযোগ নেই কলকাতা মেট্রোর। তাই এবার ৯ স্টেশনে বিজ্ঞাপণ দেওয়ার সুযোগ করে দিয়ে আয় বাড়ানোর পরিকল্পনায় এগোল মেট্রো রেল। বেছে নেওয়া হয়েছে ৯ টি স্টেশন। এর মধ্যে সেক্টর ফাইভ এবং সল্টলেক স্টেডিয়ামকে ব্র্যান্ডিং করা হয়েছে।