আজ একুশে জুলাই, শহিদ দিবস। ইতিমধ্যেই ধর্মতলা চত্বরে আসতে শুরু করেছেন তৃণমূলের কর্মীসমর্থকরা। একুশে জুলাইয়ের সভাস্থল রয়েছে ধর্মতলায় ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে। সমাবেশ শুরু হবে বেলা ১১টা থেকে। যদিও আজ রবিবারের বাজার। তবুও জানজটের একটা সম্ভাবনা থেকেই যাবে। তবে সমস্যা এড়াতে যে যে রাস্তা ধরলে সুবিধা হবে, রইল তার একটি তালিকা।

১)চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ দক্ষিণ কলকাতামুখী গাড়িগুলি গণেশ অ্যাভিনিউ এবং বি বি গাঙ্গুলি স্ট্রিট হয়ে বি-বা-দী বাগ ধরে যাবে। 
 
২)মৌলালি থেকে দক্ষিণগামী গাড়িগুলি সিআইটি রোড এবং পাক সার্কাস হয়ে যাবে।

৩)উত্তর কলকাতা থেকে হাওড়ামুখী গাড়িগুলি মহাত্মা গান্ধী রোড দিয়ে বেরিয়ে যাবে।

৪) হাওড়া থেকে যে গাড়িগুলি উত্তর কলকাতার দিকে যাবে সেই গাড়িগুলি ধরবে স্ট্র্যান্ড রোড, কালীকৃষ্ণ ঠাকুর রোড ধরে যাবে। দক্ষিণ কলকাতামুখী সব গাড়িগুলি বি-বা-দী বাগ হয়ে।

৫)দক্ষিণ কলকাতা থেকে আসা গাড়িগুলিকে এদিন ধরতে হবে স্ট্র্যান্ড রোড, এবং মেয়ো রোড।

৬)শ্যামবাজার থেকে ধর্মতলা যাওয়ার পথ- বিধান সরণী- কলেজ স্ট্রীট- নির্মলচন্দ্র স্ট্রীট- গণেশ অ্যাভিনিউ- চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউ হয়ে ধর্মতলা।

৭) হাজরা মোড় থেকে ধর্মতলা যাওয়ার পথ- এস পি মুখার্জী রোড- আশুতোষ মুখার্জী রোড-জওবহরলাল নেহেরু রোড হয়ে ধর্মতলা।

৮)  হাওড়া স্টেশন থেকে ধর্মতলা যাওয়ার পথ- স্ট্র্যান্ড রোড- কিংস ওয়ে- মেয়ো  রোড- নিউ রোড- জওবহরলাল নেহেরু রোড হয়ে ধর্মতলা।

৯) শিয়ালদহ স্টেশন থেকে ধর্মতলা যাওয়ার পথ-  এজেসি বোস রোড-মৌলালি-এস এন ব্যানার্জী রোড- জওহরলাল নেহেরু রোড হয়ে ধর্মতলা।

১০) গীতাঞ্জলী স্টেডিয়াম থেকে ধর্মতলা যাওয়ার পথ- রাসবিহারি কানেক্টর হয়ে হাজরা মোড়-এস পি মুখার্জী রোড- আশুতোষ মুখার্জী রোড-জওহরলাল নেহেরু রোড হয়ে ধর্মতলা।

প্রসঙ্গত মা উড়ালপুলে কোনও মিছিলের গাড়ী উঠতে দেওয়া হচ্ছে না।  পাশাপাশি আপৎকালীন পরিস্থিতিতে মোতায়েন করা হয়েছে প্রায় পাঁচ হাজার পুলিশকর্মী। ১৪টি জায়গায় রয়েছে অ্যাম্বুলেন্স পরিষেবাও। পাশাপাশি মোয়াতেন করা হয়েছে ক্যুইক রেসপন্স টিমও।