চিনে মহামারীর আকার নিয়েছে মারণ করোনা ভাইরাস। বিশ্বের নানা প্রান্তে ইতিমধ্যে থাবা বসিয়েছে কোভিড-১৯ নামের এই ভাইরাস। যার আক্রমণ থেকে রেহাই পায়নি ভারতো। এদেশেও ক্রমে বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। এই পরস্থিতিতে নোভেল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবিলায় শুক্রবার নবান্নে জরুরী বৈঠক করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন: মধ্যপ্রদেশে ঘিরে অব্যাহত নাটক, এবার খুনের আশঙ্কা প্রকাশ বিজেপি বিধায়কের

শুক্রবার বিকেল সাড়ে তিনটে নাগাদ স্বাস্থ্য অধিকর্তা, জেলাশাসক ও জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেন মুখ্যমন্ত্রী। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন জেলশাসক ও সিএমওএইচরা। দেশের অন্যান্য রাজ্যে যেভাবে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে তাতে আতঙ্কে কাঁপছে এরাজ্যও। তবে অযথা উদ্বেগের কোনও কারণ নেই বলে রাজ্যবাসীকে আশ্বস্ত করেন মুখ্যমন্ত্রী। এরাজ্যে এখনও কারণ শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া যায়নি বলে নবান্নে বৈঠক শেষে জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

 

এদিন করোনা মোকাবিলায় কেন্দ্র রাজ্য সহযোগিতার কথাও এসেছে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, রাজ্যের সরকারি মেডিক্যাল কলেজগুলি ছাড়াও বেশ কয়েকটি জেলা হাসপাতালেও করোনা ভাইরাস চিকিৎসার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। সাবধানতা অবলম্বন করতে জেলায় অ্যাডভাইসরি পাঠানোর পাশাপাশি গড়া হয়েছে ক্যুইক রেসপন্স টিম। 

আরও পড়ুন: আরও ৪৮ ঘণ্টা বৃষ্টির পূর্বাভাস রাজ্যে, তবে দোলের আগেই হবে আবহাওয়ার উন্নতি

করোনা মোকাবিলায় রাজ্য সরকারের তরফে হেল্পলাইন খোলার কথাও এদিন জানান মুখ্যমন্ত্রী। কারও কোনও সমস্যা হলেই সেখানে যোগাযোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। নম্বরটি হল ০৩৩-২৩৪১২৬০০। এছাড়াও কলসেন্টারও খোলা হয়েছে। সেই নম্বরটি হল ১৮০০৩১৩৪৪৪২২২। করোনা ভাইরাস নিয়ে এবার থেকে প্রতিদিন বুলেটিন প্রকাশ করবে রাজ্য সরকার। পাশাপাশি ওষুধ ও মাস্কের কালোবাজারি রুখতে পুলিশকে কড়া নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।