আবারও ট্রেন থেকে বিপুল পরিমাণ কচ্ছপ উদ্ধার। যার মধ্যে দুটি পিকক সফট সেল প্রজাতি ও দুটি গাঙ্গিও প্রজাতির কচ্ছপ উদ্ধার হয়। সব মিলিয়ে মোট কচ্ছপ ৫২৩ টি উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় দুই জনকে  গ্রেফতার করে পুলিশ। জানা গিয়েছে, ধৃতদের বাড়ি সুন্দরবন এলাকায়।

আরও পড়ুন, উপাচার্যের ইস্তফার জের, কার্যত অচল হওয়ার আশঙ্কায় রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়


সূত্রের খবর, ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরো ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল সেলের যৌথ তল্লাশি চালায় দুটি স্টেশনে ।কলকাতা স্টেশন ও নৈহাটি স্টেশনে।তারা সূত্র মারফত খবর পেয়ে আজ ভোরে এই দুটি স্টেশন এ ওত পেতে ছিল।তাদের কাছে খবর ছিল পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেস এ প্রচুর পরিমান কচ্ছপ আসছে তার মধ্যে কিছু মাল নৈহাটি স্টেশন এ নামাবে আর বাকিটা কলকাতা স্টেশন এ নামবে।সেই মতো দুটি স্টেশন এ অফিসাররা ছিল।নৈহাটি স্টেশনে ব্যাগের মধ্যে বস্তায় ভরা কচ্ছপ নামাতেই সেখান থেকে কচ্ছপ উদ্ধার হয়।সেই ট্রেন কলকাতা স্টেশন ঢুকতেই ট্রেনে তল্লাশি চালানো হয়।দেখা যায় সিটের নীচে লাইন দিয়ে সাজানো প্রচুর ব্যাগ।সেই ব্যাগ খুলতেই তার মধ্যে বস্তায় ভরা কচ্ছপ উদ্ধার হয়।সেখান থেকে দুজনকে ধরা হয়। তাদের নিয়ে চলে আসা হয় সল্টলেকের রেসকিউ সেন্টারে।

আরও পড়ুন, ফের গর্ভ ভাড়া দিয়ে প্রতারণার অভিযোগ, ভ্রুণ হত্যায় গ্রেফতার তরুণী ও প্রেমিক

সূত্রের খবর, পুলিশি জেরায় জানা গিয়েছে, ধৃতদের বাড়ি সুন্দরবন এলাকায়। উত্তরপ্রদেশ থেকে ট্রেনে করে নিয়ে আসা হচ্ছিল ওই বিপুল সংখ্য়ক কচ্ছপ। কতদিন ধরে তারা এই পাচার চালাচ্ছে লুপ্তপ্রায় প্রাণীদের, তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ধৃতদের আগামীকাল কোর্টে তোলা হবে।

আরও পড়ুন, 'চুমু খেতে মানা', করোনা সচেতনতায় নির্দেশিকা কলকাতা মেট্রোর