দেশের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় গতকালই  কেন্দ্রের বিশেষ আর্থিক প্যাকেজকে অশ্বডিম্ব বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্য়েই মুখ্যমন্ত্রীর এই বক্তব্য়কে নেতিবাচক চিন্তাধারা  বললেন রাজ্য়পাল জগদীপ ধনখড়। উল্টে কেন্দ্রের প্য়াকেজকে যুগান্তকারী বলে মন্তব্য করলেন রাজ্যপাল। টুইট করে কেন্দ্রের প্যাকেজকে স্বাগত জানিয়েছেন রাজ্যপাল।
এবার কেন্দ্রের আর্থিক  প্য়াকেজ নিয়েও রাজ্য়-রাজভবন সংঘাত জারি  থাকল। প্যাকেজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বিঁধতে ছাড়লেন না ধনখড়। কেন্দ্রের প্যাকেজ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর অবস্থান নেতিবাচক ও দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন রাজ্যপাল। সম্প্রতি করোনা মোকাবিলায়  ২০ লক্ষ কোটি টাকার বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই প্যাকেজে সমাজের সব স্তরের মানুষ উপকৃত হবেন বলে দাবি করেন প্রধানমন্ত্রী। বুধবার কেন্দ্রের প্যাকেজ কোন কোন খাতের জন্য বরাদ্দ তার একটি প্রাথমিক ধারণা দিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন।

রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় কেন্দ্রের এই প্যাকেজকে যুগান্তকারী পদক্ষেপ বলে বর্ণনা করেছেন। অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার লক্ষ্যে কেন্দ্রের এই অবস্থানকে স্বাগত জানিয়েছেন ধনখড়। যদিও করোনা মেকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের বিশাল আর্থিক প্যাকেজকে অশ্বডিম্ব বলে মন্তব্য় করলেন মুখ্য়মন্ত্রী। মমতার দাবি, প্যাকেজে রাজ্যগুলির জন্য কিছুই নেই। কেন্দ্রের প্যাকেজ নিয়ে  মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, রাজ্যগুলি কীভাবে চালাবে? তার কোনও সদুত্তর নেই প্যাকেজে।

করোনা মোকাবিলায় গতকালই ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই প্যাকেজ কোন কোন খাতে খরচ করা হবে তা বিস্তারিত ভাবে বলেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। কেন্দ্রের এই প্যাকেজ আসলে আইওয়াশ বলে কটাক্ষ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন প্রধানমন্ত্রীর  প্রস্তাবিত ২০ লক্ষ কোটি টাকার ‘আত্মনির্ভর’ আর্থিক প্যাকেজকে ‘বিগ জিরো’ বললেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সবাই ভেবেছিল, রাজ্যগুলি হয়তো কিছু পাবে। কিন্তু শেষপর্যন্ত অশ্বডিম্ব প্রসব করল। দশ হাজার কোটি টাকা বাদ দিলে দেখবেন টোটালটাই বিগ জিরো।