থামছে না রাজ্য়-রাজ্য়পাল সংঘাত। শনিবার তাতে নতুন সংযোজন রাজ্য়ের আইনশৃঙ্খলা। এবার রাজ্য়ের পুলিশকর্তাদের একহাত নিলেন রাজ্য়ের সাংবিধানিক প্রধান। টুইটে তিনি লেখেন, রাজ্যের আইপিএস অফিসারদের একাংশ বিরোধী সাংসদ, বিধায়কদের বিরুদ্ধে পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করছেন। শীঘ্রই যার ফল টের পাওয়ানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধেও সরব হয়েছেন তিনি। এদিকে পাল্টা রাজ্য়পালকে কটাক্ষ করেছে তৃণমূল।  

এদিন টুইটারে রাজ্যপাল লেখেন, রাজ্য়ের উদ্বেগজনক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি এবং পুলিশের রাজনৈতিক পক্ষপাতদুষ্ট অবস্থান নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে পাঠিয়েছিলাম। রাজ্যপাল ডাকলে রাজভনে এসে রিপোর্ট করে যাওয়া মুখ্যমন্ত্রীর সাংবিধানিক কর্তব্য। তিনি তা পালন করুন। যদিও রাজ্যপালের এই টুইট নিয়ে  রাজ্যের মন্ত্রী তথা বরানগরের বিধায়ক তাপস রায় বলেন, দেশের ৬টা রাজ্যকে যেমন পঙ্গপালের উপদ্রব ঠেকাতে হচ্ছে, আমাদেরও তেমন রাজ্যপালের উপদ্রব ঠেকাতে হচ্ছে। কী আর করা যাবে।

শনিবার পুলিশ প্রশাসনের সম্পর্কে রাজ্য়পাল লিখেছেন, বিরোধী নেতা বা সাংসদদের বিরুদ্ধে 007-এর ঠান্ডা মাথার খুনির মতো আচরণ দেখা যাচ্ছে। রাজ্যপাল হিসাবে এই জঘন্য কাজ বন্ধ করার জন্য যা যা করার করছি। সংশ্লিষ্টরা টের পাবেন। এই বলেই থেমে থাকেননি ধনখড়। তিনি আরও বলেন, এমএপি ত্রয়ীর প্রশাসনে পুলিশ দল পরিচালিত সংস্থা। আচরণে আইপিএস অফিসাররা রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হবেন সেটাই দস্তুর। তাঁদের কেউ কেউ মর্জিমাফিক আইনের ব্যবহার করছেন।

সম্প্রতি  দিল্লি গিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে রাজ্য়ের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে বৈঠক করেন রাজ্য়পাল।  বৈঠকের পর নিজেই টুইট করে সেই কথা জানান। তিনি বলেন,রাজ্য়ের বিপর্যস্ত আইনশৃঙ্খলা, কোভিড পরিস্থিতি এবং আমফান দুর্নীতি নিয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট তিনি অমিত শাহকে দিয়েছেন।