'হাইকোর্ট তার মতো নির্দেশ দিয়েছে, কিন্তু তা কি রাজ্য সরকার কার্যকর করবে?' দূর্গাপূজা নিয়ে জনস্বার্থ মামলার রায়ে কলকাতা হাইকোর্টের রায়ের বিষয়ে মতামত জানাতে গিয়ে এমনই প্রশ্ন তুললেন বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার।

পূজা শুরু হওয়ার ঠিক মুখে, বস্তুত তৃতীয়ার দিন কলকাতা হাইকোর্ট জানিয়ে দিয়েছে রাজ্য়ের কোনও প্যান্ডেলেই দর্শনার্থীদের প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে না। শুধুমাত্র আয়োজকরা থাকতে পারবেন প্যান্ডেলে। সেই সঙ্গে কমিউনিটির পূজার ক্ষেত্রে প্যান্ডেলে কখনই ১৫ থেকে ২৫ জনের বেশি লোক জড়ো হতে দেওয়া যাবে না। অন্তত ২ জন করে পুলিশ নিয়োগ করতে হবে এই বিষয়টি নিশ্চিত করতে।

এই বিষয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার জানিয়েছেন, মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যেই ৩৫ থেকে ৩৭ হাজার কমিউনিটি পূজোকে অর্থ সহায়তা করেছেন পুজো করার জন্য। কাজেই প্রতি প্যান্ডেলে ২ জন করে পুলিশ দিতে গেলেও ৮০ হাজার পুলিশ কর্মী দরকার। সেই ব্যবস্থা কি আদৌ রাজ্য সরকার করবে? নাকি হাইকোর্ট তার মতো নির্দেশ দিয়েছে, সরকার তার মতো চলবে এই পথ বেছে নেবে? এই প্রশ্ন তুলেছেন তিনি।

সেইসঙ্গে তিনি জানান, রাজ্যকে করোনা শূন্য করার কথা বলে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কার্যক্ষেত্রে রাজ্যূবাসীকে পূজা উপভোগে উৎসাহ দিয়েছেন। পূজার ভিড়ের দাপটে করোনা সংক্রমণ কোথায় গিয়ে পৌঁছতে পারে, তার কথা সম্ভবত রাজ্য প্রশাসন আগে ভাবেইনি, বলে দাবি করেছেন তিনি। তিনি আরও জানান, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় গোষ্ঠী সংক্রমণ বাড়ছে। এই অবস্থায় হাইকোর্টের এই রায় দেওয়া ছাড়া উপায় ছিল না বলেই জানিয়েছেন বিজেপি নেতা।