মিলে গেল আবহাওয়ার পূর্বাভাস। প্রবল ঝড়ের সঙ্গে বৃষ্টিতে ভিজল কলকাতা। তবে একাধিক জায়গায় বাজ পড়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। আপাতত প্রবল গরম থেকে মুক্তি পেল মহানগর।

এদিন শহরে সূর্যোদয় হয়েছে মেঘের আড়ালেই। তবে বেলা বাড়তেই প্রবল গরমে হাঁসফাঁস অবস্থা হয়েছে শহরবাসীর। সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। সপ্তাহজুড়েই বিক্ষিপ্তভাবে ঝড় বৃষ্টির পূর্বাভাস। সপ্তাহের মাঝে মঙ্গলবার ও বুধবার বাড়তে পারে ঝড়-বৃষ্টি। কালবৈশাখীর সম্ভাবনা রয়েছে সপ্তাহের মাঝে। উত্তর ও দক্ষিণ বঙ্গের ২১ জেলায় হতে পারে ভারি বৃষ্টি। এমনই পূর্বাভাস দিচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

লকডাউন থাকায় এমনিতেই ঘরমুখো শহর। সোমবার যেসব সরকারি ক্ষেত্রে কাজের ছাত্রপত্র মিলেছে, তারাও আগেভাগেই পৌঁছে গিয়েছেন বাড়িতে। তাই ঝড়ে এখনও পর্যন্ত কলকাতায় ক্ষয়ক্ষতির কোনও খবর পাওয়া যায়নি। তবে রাতের তাপমাত্রা বৃষ্টির জেরে কমেছে অনেকটাই। 

আবহাওয়া দফতরের খবর অনুযায়ী, সোমবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৭.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।  যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। শহরের বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৮৭ শতাংশ। আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ন্যূনতম ৪৭ শতাংশ। গতকাল  রবিবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৪.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

এদিন হাওয়া অপিস জানিয়েছিল, অসম ও সংলগ্ন এলাকায় একটি ঘূর্ণাবর্ত রয়েছে।  এই  ঘূর্ণাবর্ত থেকে উত্তরপ্রদেশ পর্যন্ত রয়েছে নিম্নচাপ অক্ষরেখা। এই অক্ষরেখা উত্তরবঙ্গ ও বিহার এর ওপর দিয়ে বিস্তৃত। এর টানেই বঙ্গোপসাগর থেকে  জলীয়বাষ্প ঢুকছে। মঙ্গলবার ও বুধবার কালবৈশাখীর সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি।  ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হওয়ার পূর্বাভাস।  সঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি। 

রাজ্যের কয়েকটি জেলায় ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। ভারী বৃষ্টির জেলাগুলি হল উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, জলপাইগুড়ি, মালদা এবং দক্ষিণবঙ্গের মুর্শিদাবাদ পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর। বুধবারে ও উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং এবং দক্ষিণবঙ্গের বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, নদীয়াতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা। উত্তর পশ্চিম ভারতে নতুন করে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা ঢুকছে বৃহস্পতিবার রাতে। এর প্রভাবে সপ্তাহান্তে জম্মু কাশ্মীর লাদাখ হিমাচল প্রদেশ উত্তরাখন্ড সহ উত্তর-পশ্চিম ভারতের রাজ্যগুলি তে  বিক্ষিপ্তভাবে ঝড়-বৃষ্টি কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টি বা হালকা তুষারপাতের সম্ভাবনা।