Asianet News BanglaAsianet News Bangla

মুম্বইয়ের ২৬/১১ ধাঁচে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা কলকাতায়, মোকাবিলায় নয়া জেটি তৈরি পুলিশের

মুম্বইয়ের ২৬/১১ ধাঁচে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা এবার কলকাতায়।   এই খবর পেতেই নিরাপত্তা নিয়ে আরও তৎপর হয়ে  গঙ্গায় নিজস্ব একটি জেটি তৈরি করল কলকাতা পুলিশ।  

Kolkata Poilce have built a new jetty to protect the city from terrorists RTB
Author
Kolkata, First Published Dec 30, 2021, 5:17 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

মুম্বইয়ের ২৬/১১ ধাঁচে জঙ্গি হামলার আশঙ্কা এবার কলকাতায় (Kolkata)। নদীপথে মহানগরে হানা দিতে পারে জেহাদিরা। এই খবর পেতেই নিরাপত্তা নিয়ে আরও তৎপর হয়েছে কলকাতা পুলিশ। বন্দরের নিরাপত্তা বৃদ্ধির পাশাপাশি গঙ্গায় নিজস্ব একটি জেটি তৈরি করল কলকাতা পুলিশ। এই জেটির নাম দেওয়া হয়েছে, 'কলকাতা পুলিশ কমিশনারেট', জেটি। যার উদ্বোধন করেন নগরপাল সৌমেন মিত্র (CP Soumen Mitra)। 

লালবাজার সূত্রে খবর, এবার কলকাতায় জঙ্গি হামলা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। কারণ গোপন সূত্রে খবর পেয়েই এমন আশঙ্কা করা হচ্ছে। কলকাতা পুলিশ সূত্রে খবর, বাংলাদেশ থেকে সুন্দরবন হয়ে নদীপথে কলকাতায় প্রবেশ করতে পারে জঙ্গিরা। গোয়েন্দা রিপোর্টেও এই পথের কথা বলা হয়েছে। তাই প্রতিটা ঘাটে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। দিন-রাত মোতায়েন থাকছে সেখানে কলকাতা পুলিশ। কলকাতাকে সুরক্ষিত রাখতে দক্ষিণ থেকে উত্তরের বরানগর পর্যন্ত দিন ও রাতে গঙ্গায় প্রত্যেকটি লঞ্চ এবং মৎসজীবীদের নৌকার উপর নজর রাখতে হয় পুলিশকে। মুম্বই হামলার পর থেকেই মূলত নদী পথে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। শুরু হয়েছে অতিরিক্ত নজরদারি। সাধারণত কলকাতার গঙ্গায় মূল দায়িত্ব রয়েছে জল পুলিশ অর্থাৎ কলকাতা পুলিশের রিভার ট্রাফিকের উপরে। সেজন্য জল পুলিশের নিজস্ব জেটিও রয়েছে। প্রথমে টহল দিত জলপুলিশের লঞ্চ। আর এবার সেই  জলপুলিশের লঞ্চের সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। তবে গত কয়েক বছর ধরে গঙ্গায় এখন কলকাতা পুলিশের স্পিড বোর্ড এবং ওয়াটার স্কুটার। জলযানের সংখ্যা বৃদ্ধিতে এবার জলপুলিশের দফতর লাগোয়া আরও নতুনএকটি জেটি করার পরিকল্পনা নিয়েছে কলকাতা পুলিশ। 

পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, মুম্বইয়ের আদলে জলপথে এসে কলকাতায় জঙ্গিরা হামলা চালাতে পারে, এমন সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। কারণ বাংলাদেশে থেকে সুন্দরবন হয়ে কলকাতায় জঙ্গিরা পাড়ি দিতে পারে, এমন সম্ভাবনার কথা জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারাও। জঙ্গিরা যদি ছোট নৌকা ধরে কলকাতার কোনও ঘাট বা বন্দরে এসে উঠে কাসভদের মতো কোনও স্বয়ংক্রিয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালাতে শুরু করে, তার ফল হবে মারাত্মক।প্রসঙ্গত, একদিকে বর্ষশেষের মাস এবং একুশকে বিদায় জানিয়ে বাইশে পা দিতে চলেছে আর কয়েকদিন পরেই। এহেন পরিস্থিতিতে তাই গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মোটেই ঝুঁকি নিতে রাজি নয় কলকাতা পুলিশ। আরও একটা  ২৬/১১ ধাঁচে মুম্বই হামলা কোনওভাবেই না হয়, তাই শহরকে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios