বাবুল সুপ্রিয়ের প্রশ্নের জবাবে এবার মুখ খুলল কলকাতা পুলিশ। সন্থ্য়ায় টুইট করে কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, বাঙ্গুর হাসপাতালে ভিডিয়োকারী যুবকের বিরুদ্ধে কোনও মামলা দায়ের হয়নি। এই সম্পর্কে ভুল তথ্য় পেয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়।

কেন্দ্রের কিট খারাপ, বাংলায় টেস্ট কম হয়নি বললেন মুখ্য়মন্ত্রী

বাঙ্গুর হাসপাতালের ভিডিয়ো  নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্য় রাজনীতি।  একটি ভিডিয়োর সত্যতা নিয়ে রাজ্য় সরকারের ওপর চাপ বাড়িয়েছে বিরোধীরা। নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে ভিডিয়ো দিয়ে অবিলম্বে এর ব্যাখ্যা চেয়েছেন আসানসোলের বিজেপি সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। সব মিলিয়ে সরকারি হাসপতালে কোভিড চিকিৎসার এই দশা নিয়ে সরগরম বাংলা।

The tweet from @SuPriyoBabul is completely incorrect and a misinformation. Somnath Das has not been ‘booked’ by Kolkata Police. https://t.co/az9MxPvDx6

— Kolkata Police (@KolkataPolice) April 22, 2020  

কোভিড চিকিৎসায় রাজ্য়  সরকারের পন্থা অনুসরণ করবে দেশ। কেন্দ্রীয় দল দেখলে বুঝতে পারবে কোথায় করোনা মোকাবিলায় কতটা তৎপড় রাজ্য় সরকার। মঙ্গলবার সাংবাদিকদের এই কথা বলেছিলেন আত্মবিশ্বাসী তৃণমূলের সাংসদ ডেরেক ও' ব্রায়েন। কিন্তু বাস্তবে ডেরেকের দাবি উড়িয়ে দিল সোশ্যাল মিডিয়ার একটি ভিডিয়ো। যেখানে বাঙ্গুর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডের একটি ভিডিয়ো প্রকাশ্য়ে এসেছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে, একাধিক মৃতদেহের পাশেই শুয়ে থাকতে হচ্ছে করোনায় সন্দেহভাজনদের। ভিডিয়োকারী ব্যক্তি দাবি করেছেন, করোনায় যেখানে সামাজিক দূরত্বের কথা বলা হচ্ছে, সেখানে খোদ আইসোলেশন ওয়ার্ডেই বেড রাখা হয়েছে কাছাকাছি।

ত্রাণ বিলি নিয়ে রণক্ষেত্র বাদুড়িয়া, জবাবে কী বললেন মুখ্য়মন্ত্রী..

সোশ্য়াল মিডিয়ার এই ভিডিয়ো নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বাবুল। টুইটারে তিনি লিখেছেন, সব সোশ্য়াল মিডিয়ায় বাঙ্গুরের ভিডিয়ো ভাইরাল দেখেও এটা ভুয়ো বলে দাবি করেনি মমতার সরকার। এমনকী হাসপাতালটা যে বাঙ্গুর নয় তাও বলা হয়নি। এর থেকে এটাই বুঝে নিতে হবে, যে বাঙ্গুরের যে ভিডিয়ো প্রকাশ্য়ে এসেছে সেটা বিশ্বাসযোগ্য। এই বলেই অবশ্য় থেমে থাকেননি কেন্দ্রীয় বন ও পরিবেশ প্রতিমন্ত্রী। এছাড়াও হাসপাতালের ওই যুবকের বিরুদ্ধে পুলিশ কোন মামলা করেছে কিনা তা জানতে চান বিজেপি নেতা। যার জবাবে এই টুইট করেছে কলকাতা পুলিশ।