মাঝে ছুটি নিলেও ফের কলকাতায় উপস্থিত শীত। আবহাওয়া দফতর বলছে, এক ধাক্কায় ৩ ডিগ্রি কমতে পারে কলকাতার পারদ। বুধবার থেকে ফের লেপ ,কম্বল নিয়ে প্রস্তুত হবে মহানগরবাসী। 

হাওয়া মোরগ বলছে, এই মুহূর্তে রাজ্যে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে আসা ঠান্ডা হাওয়ার দাপট বেড়েছে । কোনও পশ্চিমী ঝঞ্ঝা না থাকাতেই এই পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে রাজ্যে। আগামীকাল ও পরশু কলকাতার তাপমাত্রা ১৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে থাকবে। পশ্চিমের জেলাগুলোর তাপমাত্রা ১০ থেকে ১১ ডিগ্রির আশ পাশে থাকবে। সপ্তাহের শেষে অর্থাৎ শনি-রবিবার কলকাতার তাপমাত্রা আরও একটু কমে ১২ ডিগ্রি ছোঁবে। 

এদিন কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৩.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। সোমাবার বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২২.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা ছিল স্বাভাবিকের থেকে ৩ ডিগ্রি কম। আর বাতাসে আর্দ্রতার পরিমাণ ছিল ৫৬ থেকে ৯২ শতাংশ। তাপমাত্রা নীচের দিকে নামায় এখনও দক্ষিণবঙ্গে শীত বজায় থাকবে। আগামী দিনেও সকালে ও রাতে বইতে পারে কনকনে হাওয়া। সোমবার সকাল থেকেই শহরে কনকনে উত্তুরে হাওয়া বইতে শুরু করেছিল। 

এই উত্তুরে হাওয়ার জেরে গত প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলা কিছুটা অস্বস্তিকর আবহাওয়া উধাও হয়েছে। সোমবারের আবহাওয়া দেখেই আন্দাজ পাওয়া গিয়েছিল মঙ্গলবার তাপমাত্রার পারদ নামবে। আকাশ মেঘাচ্ছন্ন হওয়ার কারণে বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা ফের বাড়ার পূর্বাভাস থাকলেও সপ্তাহান্তে ফের শীতের আমেজ ফিরবে। আবহাওয়া দফতরের আশা শুক্রবার আরও কিছুটা নামদে শহরের তাপমাত্রার পারদ। 

সপ্তাহান্তে শীত এমন দাপটে ফিরবে যে কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমে যেতে পারে ১১ ডিগ্রির কোঠায়। এমনটাই মনে করছেন আবহবিদরা। ফলে শীতের এখনই বিদায় নেওয়ার কোনও সম্ভাবনা নেই। এদিকে মঙ্গলবার উত্তরবঙ্গের বেশকিছু এলাকায় ঘন কুয়াশার সতর্কতা রয়েছে। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জেরে আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে বৃহস্পতি ও শুক্রবার উত্তরবঙ্গের ওপরের জেলাগুলিতে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।