করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে সতর্কতামূলক পদক্ষেপ শুরু হতেই বাজার থেকে কার্যত উধাও হ্যান্ড স্যানিটাইজার। তার উপর কালোবাজারিরও অভিযোগ উঠেছে একাধিক জায়গায়। এই পরিস্থিতিতে অনেকেই উদ্যোগী স্যানিটাইজার তৈরিতে। এবার উদ্যোগী হয়েছে লেডি ব্রেবোর্ন কলেজও। 

 

 

আরও পড়ুন, ৬ মাস বিনামূল্য়ে রেশন দেবে রাজ্য়, করোনা আতঙ্কে ঘোষণা মুখ্য়মন্ত্রীর

লেডি ব্রেবোর্ন কলেজের মাইক্রোবাইলোজি বিভাগ তৈরি করেছে এই জীবাণু নাশক হ্য়ান্ড স্য়ানিটাইজার। অপরদিকে, বেথুন কলেজের অধ্য়ক্ষ কৃষ্ণা রায় জানিয়েছেন, রসায়ন বিভাগের শিক্ষিকা অমিতা কর-এর নেতৃত্বে শিক্ষাকর্মীরা তৈরি করছেন হ্য়ান্ড স্য়ানিটাইজার।উল্লেখ্য়, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরিতে উদ্যোগী হয়েছেন যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এবং প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ছাত্ররাও। যাদবপুরের ফার্মাসিউটিক্যাল বিভাগ প্রাকৃতিক উপকরণ দিয়ে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছে। পাশাপাশি যাদবপুরের ইঞ্জিনিয়ারিং শাখার ছাত্র সংসদের উদ্যোগেও তৈরি করা হচ্ছে স্যানিটাইজার।

 

 

আরও পড়ুন, 'চাইনিজ-নেপালিজ' তোমরা রোগ নিয়ে এসেছ, ফেসবুকে ভাইরাল কলকাতার জাতি বিদ্বেষ

 যাদবপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের সহউপাচার্য চিরঞ্জীব ভট্টাচার্য জানিয়েছেন, এই সব স্যানিটাইজার বিনামূল্যে ও সুলভে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় বিলি করা হবে।  বিশ্ববিদ্য়ালয়ের চার নাম্বার গেটে শনিবার থেকে বিক্রি শুরু হবে।  অপরদিকে প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদও স্যানিটাইজার তৈরি করবে বলে 'ক্রাউড ফান্ডিং'-র ডাক দিয়েছে। ছাত্র সংসদের তরফে জানানো হয়েছে যে, এই সঙ্কটের মুহূর্তে রসায়ন বিভাগের অধ্যাপকদের সঙ্গে কথা বলে এই উদ্যোগ নিতে চাইছেন তাঁরা। 

আরও পড়ুন, করোনা রুখতে বাতিল আরও এক পরীক্ষা, অনির্দিষ্টকালের জন্য পিছিয়ে গেল পিএসসি