Asianet News BanglaAsianet News Bangla

KMC Election 2021: পুরভোটের প্রচারে মদনের সঙ্গে 'বাদামকাকু', 'কাঁচা বাদাম'-এর সুরে জমে উঠল আড্ডা

শনিবার সন্ধেয় রবীন্দ্র সরোবর এলাকায় ভুবন বাদ্যকরের সঙ্গে আড্ডা জমান তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। সেখানে একটি চায়ের দোকানে জমে ওঠে আড্ডা। এমনকী, বাদামকাকুর সঙ্গে গলা মেলাতেও দেখা যায় 'কালারফুল বয়কে'।

Madan Mitra Announce Special Gift For Bhuban Badyakar bmm
Author
Kolkata, First Published Dec 11, 2021, 9:47 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

সোশ্যাল মিডিয়ার (Social Media) দৌলতে তাঁকে এখন কে চেনে না! 'বাদামকাকু' (Badam Kaku) এখন রীতিমতো ভাইরাল (Viral)। তাঁর 'কাঁচাবাদাম' গান ইতিমধ্যেই রিমেক করা হয়েছে। বীরভূমের (Birbhum) দুবরাজপুর থেকে গোটা রাজ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে তাঁর গানটি (Song)। এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ জনপ্রিয় তিনি। আর এবার কলকাতাবাসীর (Kolkata) পাড়ায় পা রাখলেন 'বাদামকাকু' ভুবন বাদ্যকর (Bhuban Badyakar)। কলকাতা পুরভোটের (KMC Election) প্রচারে এবার পা মেলালেন তিনি। আর তার জেরেই পুরভোটের প্রচার মেতে উঠল 'কাঁচা বাদাম'-এর সুরে। 

শনিবার সন্ধেয় রবীন্দ্র সরোবর এলাকায় ভুবন বাদ্যকরের সঙ্গে আড্ডা জমান তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র (Madan Mitra)। সেখানে একটি চায়ের দোকানে জমে ওঠে আড্ডা। এমনকী, বাদামকাকুর সঙ্গে গলা মেলাতেও দেখা যায় 'কালারফুল বয়কে'। গান শুনে ভুবনের প্রশংসায় পঞ্চমুখ তিনি। 

Madan Mitra Announce Special Gift For Bhuban Badyakar bmm

‘আমার কাছে নাইকো বুবু ভাজা বাদাম/আমার কাছে আছে শুধু কাঁচা বাদাম…।’ সোশ্যাল মিডিয়ায় এখন সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় এই দুই লাইন। ফেসবুক হোক বা কোনও সোশ্যাল সাইট সেখানে একবার না একবার এই গান শোনা যাচ্ছেই। জনপ্রিয় ইউটিউবার (YouTuber) স্যান্ডি সাহা (Sandy Saha) আগেই দেখা করেছেন ভুবন বাদ্যকরের সঙ্গে। এমনকী, ভুবনের গানে নাচতে দেখা গিয়েছে আরও অনেককেই। সম্প্রতি বার্নপুরের কয়েকজন যুবক-যুবতী ভুবনের হাতে তুলে দিয়েছেন পিয়ানো। তা পেয়ে বেজায় খুশি হন তিনি।

আরও পড়ুন- রাজ্যে কৃষক আন্দোলনের 'আঁতুড়ঘরে' এবার ধর্নায় বসছে বিজেপি, ঘোষণা শুভেন্দুর

শনিবার শহরে তৃণমূল প্রার্থীর হয়ে প্রচারে আসেন ভুবন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছাও প্রকাশ করেছেন তিনি। শনিবার সকালে প্রথম ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল প্রার্থী অমল চক্রবর্তীর হয়ে প্রচার করেন। এরপর তাঁকে দেখা যায় মদন মিত্রর সঙ্গে। ভুবনের গানে মুগ্ধ হন বিধায়ক। তিনি ঘোষণা করেন, তাঁর বিধায়ক হিসেবে একমাসের প্রাপ্য বেতন অর্থাৎ ২০ হাজার টাকা তিনি তুলে দেবেন ভুবনের হাতে। পাশাপাশি ২১ ডিসেম্বর পুরভোটের ফলাফল প্রকাশের দিন তাঁকে ১৪৪ কেজি কাঁচা বাদামের অর্ডার দেন মদন মিত্র। কলকাতার ১৪৪টি ওয়ার্ডে ওই দিন এই বাদাম পৌঁছে দিতে হবে বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন- 'কলকাতা পুরভোটে একটি আসনও পাবে না BJP', বিস্ফোরক জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলেও তেমন কোনও লাভ হচ্ছে না ভুবন বাদ্যকরের। তাঁর গাওয়া গান পোস্ট করে ব্যাপক টাকা রোজগার করছেন ইউটিউবাররা। তাঁর বাড়িতে ভিড় লেগেই থাকছে। অবশ্য তাতে তাঁর কোনও লাভ হচ্ছে না। তিনি কোনও টাকা পাচ্ছেন না। অনেকে তো আবার গানের ভিডিও করার অছিলায় বাদাম নিচ্ছেন কিন্তু পরে আবার সেই বাদাম ফিরিয়ে দিয়ে চলে যাচ্ছেন। সম্প্রতি এনিয়ে থানার দ্বারস্থ হয়েছিলেন তিনি। ভুবন বলেন, 'আমার গান ভাইরাল হওয়ায় প্রতিদিন প্রচুর মানুষ ভিড় করছেন আমার বাড়িতে। আমি গাইলে সেটা ভিডিয়ো রেকর্ডিং করছেন। ইউটিউবে সেই গানের কপিরাইট রয়েছে দেখাচ্ছে। অথচ আমি কিন্তু এ সব করিনি।' যাই হোক তাঁকে আর্থিকভাবে সাহায্য করার কথা ঘোষণা করেছেন মদন মিত্র। আর শীতের সন্ধ্যায় কলকাতার বুকে চা ও গানের মাধ্যমে ‘বাদামকাকু’-র সঙ্গে জমিয়ে প্রচার সারলেন তিনি।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios