দীর্ঘ প্রতিক্ষা শেষে ২ বছর পর ফের চালু হতে চলেছে নয়া মাঝেরহাট ব্রিজ। রেলওয়ে সেফটি কমিশন ছাড়পত্র দিতেই রাজ্য সরকার উদ্ধোধনের তারিখ জানিয়ে দিয়েছে। ৩ ডিসেম্বর-বৃহস্পতিবার মাঝেরহাট ব্রিজের উদ্ধোধন করবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।

আরও পড়ুন, শীতে গেলেই হয় 'গড়চুমুক', রইল কলকাতার কাছে সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার ঠিকানা

 

 


বাকি ছিল শুধু রেলের সেফটি সার্টিফিকেট

প্রসঙ্গত, মাঝেরহাট ব্রিজ ব্রিজ খোলা নিয়ে বিজেপির বিক্ষোভ সমাবেশে উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল। পুলিশ বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে খন্ড যুদ্ধ লাগে। তারপর মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস অভিযোগ করে, রেলের পারমিশন না দেওয়ার জন্য এই ব্রিজ খোলা যায়নি। কিন্তু তারপর রেল পরিষ্কার জানিয়ে দেয়, 'রাজ্যসরকারের জন্য এই ব্রিজ খুলতে দেরি হয়েছে। প্রথম ৪ মাসের মধ্যে ব্রিজের নকশা বদল, তারপর তৈরি ব্রিজে ২৯ টি ভুল ছিল। সেই ভুল সংশোধন করতে অনেকটাই দেরী হয়েছে'। এরপর নয়া এই সেতুর কাজ শেষ হলেও বাকি ছিল শুধু রেলের সেফটি সার্টিফিকেট। এবার সেটা মিলতেই ৩ ডিসেম্বর-বৃহস্পতিবার মাঝেরহাট ব্রিজের উদ্ধোধন করবেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।

আরও পড়ুন, বেড়িয়ে পড়ুন বড়ন্তি, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গার রইল হদিশ

 

ব্রিজ চালু হলে  বিস্তীর্ণ অংশের সঙ্গে যোগাযোগ

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে মাঝেরহাট ব্রিজ ভেঙে পড়ে। তার পর অনেকটা সময় কেটে গিয়েছে। নতুন রূপে মাঝেরহাট সেতু চালু হলে, বেহালা, নিউআলিপুর, ঠাকুরপুকুর-সহ দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অংশের সঙ্গে কলকাতার যোগাযোগ আগের মতোই স্বাভাবিক হবে।  

 

আরও পড়ুন, ভরসা নেই রাজ্য বিজেপি নের্তৃত্বে, বাংলা জয়ে ২৯৪ কেন্দ্রের পার্থী নিজেই বাছবেন অমিত শাহ