বাম আমলে চালু স্লোগান ছিল, 'পুলিশ তুমি যতই মারো, মাইনে তোমার একশো বারো'।  এবার বদলে ফেলতে হবে সেই স্লোগান, কেননা মাইনে বাড়ছে পুলিশের।

পুলিশ নিয়ে মহা বিড়ম্বনায় পড়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সন্দেশখালি হোক বা নৈহাটি বারবার প্রশ্নের মুখে পড়ছে পুলিশের ভূমিকা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে একাধিক রদবদল ঘটিয়েছেন পুলিশের বেশ কিছু পদের। তাও যেন স্বস্তি নেই। এই তো কিছুদিন আগে মিস ইন্ডিয়া উষসী সেনগুপ্তর আজ রাতের কলকাতায় বিপদে পড়েও পুলিশের সাহায্য পায়নি। সঙ্গে সঙ্গে শো-কজ করা হয় তিন পুলিশ অফিসারকে। পুলিশকে নিয়ে সন্দিহান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চ থেকে সমালোচনাও করেছেন পুলিশের ভূমিকার। এমনকী ডাক্তারদের সঙ্গে বৈঠকের সময় অনুজ শর্মাকে তিনি বলেন, পুলিশের তৎপরতা বাড়ানোর ব্যবস্থা করতে। তবু যেন কোথায় ফাঁক থেকে যাচ্ছে। তাই এবার অন্য দাওয়াই দিলেন মমতা। জানিয়ে দিলেন বেতন বাড়বে পুলিশের। 

বুধবার রাজ্য বিধানসভায় নিজের জবাবই ভাষণে মুখ্যমন্ত্রী পরিষ্কার জানিয়ে দিলেন পুলিশ কর্মীদের বেতন বাড়তে চলেছে, কেননা তারা ছুটি অনেক কম পান। 

এখন পুলিশকর্মীরা ১৩ মাসের বেতন পান। অর্থাৎ প্রতি মাসের বেতনের সাথে আরও ৩০ দিনের বেতন যোগ হয়। এবার এর সাথে যোগ হবে আরও ২২ দিনের বেতন। অর্থাৎ মোট ৫৫ দিনের বেতন অতিরিক্ত হিসেবে পাবে পুলিশ।   

প্রসঙ্গত পোস্টাল ব্যালটে এবার দুর্ভাগ্যজনক ভাবে ৩৯ টি আসনে  পরাজয় হয়েছে তৃণমূলের।  সূত্রের খবর এর অনেকটাই পুলিশের ভোট। পুলিশের সঙ্গে সংযোগ ছুটে গেলে তার ফল কী হতে পারে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভালই জানেন। তাই পুলিশের মন ফিরে পেতেই তিনি এই দাওয়াই চালু করতে চলেছেন তিনি। 

গত বুধবার  বিধানসভায় ডিএ নিয়েও কথা উঠে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিরোধীদের জবাব দিয়ে বলেন, এই সরকার ১২৩ শতাংশ মহার্ঘ ভাতা দিয়েছে। বেতন কমিশন রিপোর্ট তৈরি করার জন্য ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত সময় চেয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী নিজে নাকি তা এগিয়ে আনার জন্য তদ্বির করেছেন বেতন কমিশনের কাছে।