নাম না করে নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহদের সবথেকে বড় সুবিধেবাদী বলে কটাক্ষ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে তাঁর অভিযোগ, দিল্লি নির্বাচনের আগে প্রশাসনকে কাজে লাগিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার অশান্তিতে উস্কানি দিচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। 

এ দিন দিল্লিতে প্রথম নির্বাচনী জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেখানেই নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করার জন্য আপ, কংগ্রেস সহ বিরোধীদের সন্ত্রাসবাদীর সঙ্গে তুলনা করেন তিনি। তারই জবাবে এ দিন নবান্ন থেকে বেরনোর সময় মমতা  বলেন, 'এরা সবাইকে সন্ত্রাসবাদী বলে। আর নিজেরা তো সবথেকে বড় সুবিধেবাদী। দেশের জন্য কিছুই করতে পারছে না।'

হতাশা ব্যক্ত করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'যেভাবে দেশটা চলছে আমাদের ভাল লাগছে না। জন্মভূমিকে বদ্ধভূমি, মৃত্যুভূমি বানিয়ে দেওয়া। সরকারি মেশিনারি কাজে লাগিয়ে গন্ডগোলে উস্কানি দেওয়া হচ্ছে। এরা দাঙ্গাবাজ, গুন্ডাবাজ, ধান্দাবাজ।'

রবিবার রাতেও দিল্লির জামিয়া মিলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে। সেই প্রসঙ্গ তুলে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'এরা মুখে বলছে জনতা সবকিছুর জবাব দেবে। তাহলে জনতার উপর বিশ্বাস না করে গুলির উপরে ভরসা করছে কেন?'

এ দিন কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটেরও সমালোচনা করেছেন মমতা। কেন্দ্রীয় সরকারের বাজেটকে এ দিন 'বিগ জিরো' বলে কটাক্ষ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'বাজেটে কোনও উন্নয়নের কথা নেই। এবারের বাজেট বিগ জিরো।'