করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ক্রমশ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে করোনা রুখতে ইতিমধ্য়েই লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে  গোটা শহর সহ রাজ্য়। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে  আন্তর্জাতিক তথা অন্তর্দেশীয় রেল পরিষেবাও। তবে আন্তর্জাতিক বিমান বন্ধ করলেও এখনও  অন্তর্দেশীয় বিমান পরিষেবা চালু আছে। আর সেটা বন্ধের আর্জি নিয়েই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে, চিঠি লিখে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

আরও পড়ুন, ছিল না তাঁদের কাছে ট্রেন বন্ধের খবর, লকডাউনে শিয়ালদায় আটকে ভিন রাজ্যের যাত্রী

করোনা মোকাবিলায় এখন গোটা দেশেই আন্তর্জাতিক বিমানের উড়ান বন্ধ। কিন্তু অন্তর্দেশীয় উড়ান এখনও বাতিল হয়নি। যেভাবে করোনার সংক্রমণ বাড়ছে তারই পরিপ্রেক্ষিতে মমতা এই চিঠি লিখেছেন দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে। চিঠিতে  মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, বিমানবন্দর এখনই সম্পূর্ণ বন্ধ করা হোক। দিল্লিতে অন্তর্দেশীয় উড়ানও বন্ধ থাকবে বলে ঘোষণা করেছিল অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকার। কিন্তু কেন্দ্রীয় অসামরিক পরিবহনমন্ত্রক সেকথা অস্বীকার করে বলেছে, দিল্লির বিমানবন্দর চালু থাকছে। দিল্লিতে আসা-যাওয়ার সব উড়ান পরিষেবাই চালু থাকছে। 

আরও পড়ুন, করোনা রুখতে লকডাউন শহর, আইন ভাঙলে হতে ২ বছরের জেলও

উল্লেখ্য, দেশের বিমান পরিবহন কেন্দ্রের এক্তিয়ারের মধ্য়ে পড়ে। তাই পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নির্দেশ দিয়েছেন, রাজ্যের স্বাস্থ্যকর্মীদের হাসপাতালের কাছাকাছি রাখতে হবে। যাতে লকডাউন পরিস্থিতিতে তাঁদের যাতায়াতের  সুবিধা হয়। তাঁরা  যাতে তাঁদের কাজ চালিয়ে সফলভাবে যেতে পারেন তাই এই মুখ্যমন্ত্রীর তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে চিকিৎসক, নার্সদের জন্য যাবতীয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা রাখবে রাজ্য় সরকার 
 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস