অবশেষে রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে বৈঠক করতে রাজভবনে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ দিন বেলা বারোটা নাগাদ রাজভবনে পৌঁছন মুখ্যমন্ত্রী। এই বৈঠক রাজ্য সরকার এবং রাজভবনের মধ্যে বরফ গলার ইঙ্গিত বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল। প্রায় এক ঘণ্টা ধরে দু' জনের মধ্যে বৈঠক হয়। 

এ রাজ্যের রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই পরের পর ইস্যুতে রাজ্য় সরকারের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছেন রাজ্যপাল। রাজ্য বনাম রাজভবনের সংঘাতের খবর নিয়মিত সংবাদ শিরোনামে উঠে আসছিল। বিভিন্ন ইস্যুতে রাজ্য সরকারের সমালোচনা করার পাশাপাশি একাধিক বার রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসার প্রস্তাব দিয়েছেন। 

আরও পড়ুন- সরাসরি সম্প্রচার হয়নি প্রারম্ভিক ভাষণ, রাজ্য়ের আচরণে অপমানিত রাজ্যপাল

আরও পড়ুন- রাজ্য়ে এত বারুদের খোলা ব্য়বসা, নির্বাচন কীভাবে শান্তিতে হবে প্রশ্ন রাজ্য়পালের

এতদিন সেই প্রস্তাবে সাড়া না দিলেও অবশেষে সিদ্ধান্ত বদলালেন মুখ্যমন্ত্রী। এর আগে বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন শুরুর দিনই অবশ্য সে ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। সেদিন সরকারের তৈরি করে দেওয়া খসড়া বক্ততাই বিনা আপত্তিতে পাঠ করেছিলেন রাজ্যপাল। পরে বিধানসভাতেই প্রায় চল্লিশ মিনিট ধরে রাজ্যপালের সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর কথা হয়। 

যদিও এ দিনের বৈঠকে ঠিক কী কী বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা এখনও ,স্পষ্ট নয়।