একেবারে সরাসরি সংঘাত। রাজ্য়পাল জগদীপ ধনখড়ের বিরুদ্ধে এবার সংবিধান অবমাননার অভিযোগ আনলেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। মুখ্য়মন্ত্রীর অভিযোগ, রাজ্যপালের মতো পদে বসে তাঁকে ও তাঁর মন্ত্রীদের অপমান করেছেন ধনখড়। যা আসলে অম্বেদকরের সংবিধান অবমাননার সমান। বৃহস্পতিবার এ নিয়ে রাজ্য়পালকে পাঁচ পাতার চিঠি  দিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী।

বাঙ্গুর হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে পড়ল 'করোনা রোগী', হুলুস্থুলু চত্বর.

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, আপনি আমায় সরাসরি আক্রমণ করছেন। আমার মন্ত্রী, অফিসারদের অপমান করছেন। আপনার বলার ভঙ্গি শব্দচয়ন অসাংবিধানিক। আগে নিজেকে বিচার করুন। যে রাজ্য়ের রাজ্য়পাল সেই সরকারের বিরুদ্ধেই আক্রমণ।

৪৫০ ছাড়িয়ে গেল বাংলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা, বলছে কেন্দ্রের রিপোর্ট...

আমার মন্ত্রিসভা ও প্রশাসনিক কাজে হস্তক্ষেপ। ভুলে গেছেন আমি জনগণের দ্বারা নির্বাচিত মুখ্য়মন্ত্রী। মনে হয় ভুলে গেছেন আপনি মনোনীত রাজ্য়পাল। আপনি আমার ও মন্ত্রিসভার পরামর্শ অগ্রাহ্য় করতে পারেন, কিন্তু অম্বেদকরের কথা উপেক্ষা করা আপনার উচিত নয়। আপনার মন্তব্য় আমার অফিসকে অপমান করেছে। আমাকে হতবাক করেছে। সংবিধানে দেওয়া রাজ্য়পালকে ক্ষমতার কথা উল্লেখ করে এই চিঠি দিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী

রাজ্য়ে রেশন মিলবে এবার দিন ও রাতে, দোকান খোলার সময়সীমা বাড়াল সরকার.