করোনা মেকাবিলায় কেন্দ্রীয় সরকারের বিশাল আর্থিক প্যাকেজকে অশ্বডিম্ব বলে মন্তব্য় করলেন মুখ্য়মন্ত্রী। মমতার দাবি, প্যাকেজে রাজ্যগুলির জন্য কিছুই নেই। কেন্দ্রের প্যাকেড নিয়ে  মুখ্যমন্ত্রীর প্রশ্ন, রাজ্যগুলি কীভাবে চালাবে? তার কোনও সদুত্তর নেই প্যাকেজে।

৪২০০ টাকা উৎসব বোনাস, ১০ হাজার অ্যাডভান্স ঘোষণা রাজ্যের.

করোনা মোকাবিলায় গতকালই ২০ লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। আজ সেই প্যাকেজ কোন কোন খাতে খরচ করা হবে তা বিস্তারিত ভাবে বলেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন। কেন্দ্রের এই প্যাকেজ আসলে আইওয়াশ বলে কটাক্ষ করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিন প্রধানমন্ত্রীর  প্রস্তাবিত ২০ লক্ষ কোটি টাকার ‘আত্মনির্ভর’ আর্থিক প্যাকেজকে ‘বিগ জিরো’ বললেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নে সাংবাদিক বৈঠক করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সবাই ভেবেছিল, রাজ্যগুলি হয়তো কিছু পাবে। কিন্তু শেষপর্যন্ত অশ্বডিম্ব প্রসব করল। দশ হাজার কোটি টাকা বাদ দিলে দেখবেন টোটালটাই বিগ জিরো।

এবার গার্ডেনরিচ শিপ ইয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত ৩৭ সিআইএসএফ জওয়ান

এই দশ হাজার কোটি টাকার বিষয়েও ব্যাখ্যা মমতা দেননি। তবে তিনি যখন ভিডিও কনফারেন্সিংয়ে সাংবাদিক বৈঠক করছিলেন তখন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রকেও সেই ভিডিও কলে জুড়ে নেন। তার পর অমিতবাবু আবার বলেন, ২০ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ নয়, এটা মাত্র জিডিপি-র ২ শতাংশ। অর্থাৎ ৪.২ লক্ষ কোটি টাকার প্যাকেজ।

কেন্দ্রের আর্থিক প্যাকেজের সমালোচনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, দুর্ভোগের সময় মানুষকে ধোঁকা দেওয়ার চেষ্টা। প্যাকেজে কর্মসংস্থানের কথা বলা হল না। করোনা মোকাবিলায় বরাদ্দ কোথায়। বিভ্রান্তিকর তথ্য দিচ্ছে কেন্দ্র। টাকা নেই, রাজ্যগুলি চালাবে কী করে? কোষাাগারের তলানি দশার কথা নিজেই আগে জানিয়েছেন মুখ্য়মন্ত্রী। তা সত্ত্বেও এদিন রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য উৎসব বোনাস এবং অ্যাডভান্সের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ সব মিলিয়ে এই খাতে খরচের  জন্য বাড়তি ৪০০ কোটি টাকা খরচ হবে রাজ্য সরকারের।

দেহ দাহ করে ৩০ জন শ্মশানযাত্রী জানলেন মৃতের করোনা পজিটিভ

নবান্ন সূত্রে খবর, এদিনই রাজ্য সরকারি কর্মচারীদের উৎসব বোনাস দেওয়া হবে কিনা, তা নিয়ে  বৈঠক ছিল। বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, রাজ্য সরকারি কর্মীদের উৎসব বোনাস ২০০ টাকা বাড়িয়ে করা হচ্ছে ৪২০০ টাকা৷ পাশাপাশি উৎসব অ্যাডভান্স বাড়িয়ে করা হয়েছে ১০ হাজার টাকা৷