রাজ্য় ছাড়িয়ে এবার রাজধানীতে পাড়ি দিচ্ছেন মমতা। কেন্দ্রের নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে এবার দিল্লিতে সভা করার ডাক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। দিনক্ষণ না বললেও দিল্লি ও পঞ্জাবে শীঘ্রই সভা করতে চলেছেন তৃণমূল নেত্রী। বুধবার ডোরিনা ক্রসিংয়ের সভা থেকেই যার ইঙ্গিত দিলেন মমতা।  

সংবিধান বিরোধিতার কথা বলেও কাজ হল না। দেশের রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের পরও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের  বিরোধিতায় অনড় রইলেন তৃণমূল নেত্রী। বুধবার এনআরসি ও নাগরিকত্ব আইন বিরোধী মিছিল ছিল হাওড়ায়। সেখান থেকে ডোরিনা ক্রসিং পর্যন্ত পায়ে হেঁটে আসেন মমতা।  সেই সভার শেষেই তৃণমূল সুপ্রিমো বলেন, আগামী দিনে দিল্লি ও পঞ্জাবেও নাগরিকত্বের প্রতিবাদে সভা করবে দল।   

এদিন মমতা বলেন, শুক্রবার পার্ক সার্কাসে ময়দানে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন বিরোধী সভা করবেন তিনি। বিজেপি সরকারের প্রতি তোপ দেগে মমতার হুংকার, বুলেট দিয়ে গণতান্ত্রিক আন্দোলন ঠেকানো যায় না। এটা সরকারকে বুঝতে হবে। যদি নাগরিকত্বের জন্য় নতুন আইন আনতে হয়, তাহলে অতীতে পরিচয়পত্র  নিয়ে এত ঝামেলা করেছিলেন কেন। আগে বলেছিলেন,  আধার কার্ড থাকলেই বৈধ পরিচয় পত্র হিসাবে গন্য হবে । কিন্ত এখন নতুন করে কেন নাগরিকত্বের সংশোধনী আইন আনতে হচ্ছে। এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের জবাব চান তৃণমূল নেত্রী।