শহরে যেখানে অমিত শাহ ক্রমশ ব্রিগেডমুখী হচ্ছেন,  তখন পাটের ব্য়াগ হাতে নিজের  এলাকা দাপিয়ে বেড়ালেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

প্লাস্টিক বিরোধী অভিযানে আবারও ররিবাসরীয় বাজারে দেখা গেল ফিরহাদ হাকিমকে। এদিন হাতে চটের ব্য়াগ নিয়ে চেতলার পাড়ায়-পাড়ায় ঘুরলেন কলকাতার মেয়র। সঙ্গে সর্নিবন্ধ অনুরোধ, প্লাস্টিক ব্য়াগ নয়, চটের ব্য়াগ নিয়ে বাজারে যান। সবান্ধবে বাড়ি-বাড়ি গিয়ে মহিলাদের হাতে তুলে দিলেন চটের বিগ শপার। কোথাও রেলিংয়ের ফাঁক দিয়েই গলিয়ে দিলেন এই চটের ব্য়াগ। সঙ্গে নমস্কার করতেও ভুললেন না। আবার পাল্টা প্রতি নমস্কারও করলেন গৃহিণীরা।  কেউ-বা, ড্রেনটা একটু দেখে দেওয়ার জন্য় আবদার করলেন। মেয়র দেখেও নিলেন চোখ ঘুরিয়ে।

ভিড় এগিয়ে চলল অলিগলি পাকস্থলী দিয়ে। ওই ভিড়ের মধ্য়ে থেকেই কেউ পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করলেন মেয়রকে।অভিভূত হয়ে পড়লেন মেয়র। যদিও এর আগেও প্লাস্টিক বিরোধী অভিযানে বেরিয়েছিলন মেয়র। তাই সাংবাদিকরা যখন প্রশ্ন করলেন, সামনে ভোট, তাই কি এই জনসংযোগ, তখন ফিরহাদের উত্তর, "আমরা আমরা সারাবছর পড়াশোনা করি। সারাবছর মানুষের সঙ্গে থাকি। এর আগেও প্লাস্টিক নিয়ে সচেতন করতে রাস্তায় নেমেছিলাম। এখনও নামছি। পরিবেশ বাঁচলেই সবকিছু বাঁচবে।"

এদিকে রবিবার শহরে এসেছেন অমিত শাহ। নাগরিকত্ব আইন নিয়ে দেশজোড়া উত্তাল আন্দোলনের পটভূমিকায় এই প্রথম রাজ্য়ে আসছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতি। কী ভাবছেন, প্রশ্ন করায় ফিরহাদের উত্তর, "আমরা একেবারেই চিন্তিত নই। পরিযায়ী পাখিরা  আসবে যাবে। আমরা কিন্তু সারাবছর মানুষের সঙ্গে থাকি। তাই কে এলেন না এলেন, তা নিয়ে একেবারেই ভাবিত নই।"