বছরের শেষদিনে শহর কলকাতায় যাত্রী সুবিধার্থে, বাড়ানো হল মেট্রো রেল ও বাসের সংখ্য়া এবং সঙ্গে থাকছে অতিরিক্ত নিরাপত্তা। একদিকে জাঁকিয়ে শীতে উৎসবে মেতে উঠেছে শহর। আপাতত আজ বৃষ্টিও হবে না, সারাদিন আকাশ পরিষ্কারই থাকবে। আর সেই সঙ্গে পাল্লা দিয়ে ঘুরতে বেরোবে সবাই। তাই যাত্রী সুরক্ষা ও সুবিধার কথা মাথায় রেখেই এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, হাসপাতালে ঝুলল 'লক আউট' নোটিস, বিপাকে রোগী ও পরিবারের লোকেরা

প্রতিদিন যেখানে ২৮৮টি ট্রেন চালানো হয়, সেখানে বছরের শেষ দিন বেশ কয়েকটি ট্রেন বাড়ানো হয়েছে। মঙ্গলবার, ৩১ সে ডিসেম্বর মেট্রো চলবে ২৯৬ টি। আপ ও ডাউনে মোট মেট্রো থাকবে ১৪৮ টি করে। এছাড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে ১০০ খানা মেট্রো চলবে ছয় মিনিট করে। মেট্রোরেল কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানানো হয়েছে বিকেল ৪ টা থেকে রাত ৯ টা অবধি যে সময় মেট্রোয় বেশি যাত্রী থাকে, সেই সময়েই এই ১০০ মেট্রো চলবে। অপরদিকে, নোয়াপাড়া থেকে দমদমের মধ্যে ১২৫ টি পরিষেবা দেওয়া হবে। এই মুহূর্তে টালা ব্রিজের কারণে ওই অংশে গাড়ি চলাচলের সমস্যা রয়েছে। বাস-গাড়িকে পথ ঘুরিয়ে যেতে হচ্ছে। সেই জন্য় ওই জায়গায় যাত্রী পরিষেবা দেওয়ার জন্য়,  আপে ৬৩ ও ডাউনে ৬২টি মেট্রো চালানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 

আরও পড়ুন, বর্ষবরণে তিলোত্তমায় থাকছে না বৃষ্টির ভ্রুকুটি, আশার খবর শোনাচ্ছে হাওয়া অফিস

তবে শুধু মেট্রো পরিষেবা বাড়ানো হয়নি।  নিরাপত্তা বেষ্টনীও আরও শক্তিশালী করা হয়েছে। ধর্মতলা, পার্ক স্ট্রিট , ময়দান, চাঁদনী চক, রবীন্দ্র সদন, শ্যামবাজার ও টালিগঞ্জ মেট্রো স্টেশনে থাকছে অতিরিক্ত নিরাপত্তা। এই সমস্ত স্টেশনে, কলকাতা পুলিশের কর্মীরা আগের মতই থাকছেন। আর মেট্রো রেলওয়ে পুলিশ ও আর পি এফের কর্মী সংখ্য়া বাড়ানো হয়েছে। এছাড়া সাদা পোশাকের পুলিশও মোতায়েন করা হয়েছে। সিসি ক্যামেরার মাধ্যমেও, মেট্রো ভবনের কন্ট্রোল রুম থেকে চলবে নজরদারি। ধর্মতলা, পার্ক স্ট্রিট ও ময়দানে ৫০ জন আর পি এফ মোতায়েন থাকছে। ময়দান ও ধর্মতলা এই দুটি স্টেশনে থাকছে ৪ জনের একটি বিশেষ দল। সেখানে থাকছেন আর পি এফের একজন অফিসার ও দুজন করে মহিলা আর পি এফ কর্মী।

আরও পড়ুন, রাজ্যপালকে চিঠি লিখে এবার টুইট শিক্ষামন্ত্রীর, পাল্টা জবাব জগদীপ ধনকড়েরও

বছরের শেষ দিনে, কলকাতা  মেট্রো পাশাপাশি অন্য়ান্য় পরিষেবাও বাড়ানো হয়েছে। শুধুমাত্র আজকের জন্য়, কলকাতার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সরকারি বাসের সংখ্যাও বাড়ানো হয়েছে। ইকো পার্ক এবং চিড়িয়াখানা চত্বরেও থাকবে অতিরিক্ত পরিমানে বাস। এছাড়া পার্ক স্ট্রিট চত্বরে থাকছে বেশি সংখ্যাক অ্যাপ ক্যাব।