কোনও শিথিলতা নয়, বরং অভিযুক্তদের বিরুদ্দে কড়া ব্যবস্থা চাই। এনআরএস কাণ্ড এবং ঊষসী সেনগুপ্তের হেনস্থার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এমনই চিঠি লিখল কলকাতার মুসলিম সমাজ। সেখানে তাঁরা স্পষ্টই লিখেছেন, পর পর দু'টি ঘটনায় অভিযুক্ত হিসেবে সংখ্যালঘুদের নাম জড়ানোয় তাঁরা ব্যথিত এবং লজ্জিত বোধ করছেন। 

কলকাতায় বসবাসকারী মুসলিম বিশিষ্টজনদের মধ্যে প্রায় পঞ্চাশ জন এই চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন। তাঁদের মধ্যে চিকিৎসক থেকে অধ্যাপক, বিভিন্ন পেশার মানুষি রয়েছেন। চিঠিতে মূলত দু'টি দাবি করা হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। 

আরও পড়ুন- পরিবহ, ঊষসীকে ধন্যবাদ, জীবন, সম্মান বিপন্ন করেও প্রশাসনের ঘুম ভাঙালেন তাঁরা

প্রথমত, শুধু এনআরএস বা ঊষসী সেনগুপ্তের ঘটনাই নয়, যে কোনও অপরাধেই যদি দোষী হিসেবে কোনও মুসলিমের নাম উঠে আসে, সেক্ষেত্রে যেন আইন অনুযায়ী কড়া ব্যবস্থা নেয় প্রশাসন। মুসলিম সম্প্রদায়ের প্রতিনিধি বলেই যেন তারা ছাড় না পেয়ে যায়। যাতে মুসলিমদের বিশেষ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে বা তোষণ করা হচ্ছে বলে যে ধারণ জনমানসে তৈরি হয়েছে, তা যেন ভুল প্রমাণিত হয়। 

 

 

দ্বিতীয়ত, কলকাতার বিস্তীর্ণ অংশে ছড়িয়ে থাকা মুসলিম সম্প্রদায়ভুক্ত পরিবারগুলি এবং বিশেষত সংখ্যালঘু যুবসমাজের মধ্যে নাগরিক দায়িত্ব পালন এবং আইন মেনে চলার মতো বিষয়গুলি নিয়ে সচেতনতা বাড়ানোর উদ্যোগ নেয় সরকার, সেই আবেদনও রাখা হয়েছে চিঠিতে।