এনআরএস হাসপাতালে ফের আক্রান্ত এক নার্স৷ সূত্রের খবর, বেবি নার্সারিতে কর্মরত এক নার্সের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মিলেছে। তারপরই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ সংস্পর্শে আসাদের তালিকা করতে শুরু করেছে। কারা কারা সংস্পর্শে এসেছেন চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে তার তালিকা তৈরির কাজ চলছে বলে জানা গিয়েছে।যদিও এই বিষয়ে স্বাস্থ্য দফতর এখনও কিছু জানায়নি৷

আরও পড়ুন, সংক্রমণ বেড়েই চলেছে কলকাতায়, কন্টেইনমেন্ট জোন ছুঁল ৩৩৮


গত কয়েকদিন ধরেই ওই নার্সের শরীরে করোনা উপসর্গ দেখা যাচ্ছিল৷ তারপর তাকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর নির্দেশ দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে পাঠানো হয় পরীক্ষার জন্য৷ সেই রিপোর্ট পজিটিভ৷ এরপরই আক্রান্ত নার্সের সংস্পর্শে আসাদের তালিকা করতে শুরু করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ৷ সেই তালিকা অনুযায়ী কাদের কাদের কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হবে তা খতিয়ে দেখছে কর্তৃপক্ষ৷ যেহেতু ওই আক্রান্ত নার্স বেবি নার্সারিতে কর্মরত, ফলে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে চিকিৎসাধীন শিশুদের মধ্যেও। এ নিয়ে হাসপাতালের কর্তাদের মধ্যেও গভীর উদ্বেগ তৈরি হয়েছে।

আরও পড়ুন, রাজ্য়ে আক্রান্ত আরও ২ পুলিশকর্মী, নতুন করে কলকাতা পুলিশে সংক্রমণের আশঙ্কা

উল্লেখ্য়, এর আগেও অজান্তে করোনা আক্রান্ত এক ব্যক্তির চিকিৎসা করার মাসুল দিতে হয়েছিল এনআরএস হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে৷ সাধারণ রোগী ভেবে জেনারেল ওয়ার্ডে চিকিৎসা চলছিল এবং পরে সেই রোগী করোনা উপসর্গ দেখা দেয়৷ এদিকে মৃত্যুর পর জানা যায় ওই রোগী করোনা আক্রান্ত৷ যার জেরে এনআরএস হাসপাতালের অন্তত ৬৫ জন ডাক্তার-নার্সকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠিয়েছিল রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর৷