অবশেষে সাময়িক স্বস্তি। কলকাতায় ১০এ-র নীচে নামল করোনা নিয়ে মৃতের সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় মহানগরে করোনা নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। আক্রান্ত হয়েছেন ৫৬৩। সব মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ১,১৭৪ জনের। বর্তমানে তিলোত্তমায় অ্য়াক্টিভ করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া ৫,৮৯০ জন৷ এই পর্যন্ত সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরেছেন ২৯ হাজার ১৯৩ জন৷

রাজ্য়ের স্বাস্থ্য় দফতরের বুলেটিন বলছে, তিন হাজারের নীচে নামছ না রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া দাঁড়াল ৩২৭৪। একদিনে মৃতের সংখ্য়া বেড়ে দাড়িয়েছে ৫৭ জন। এদের সবারই দেহে করোনার ভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। তবে এদের বেশিরভাগই কোমর্বিডিটি  নিয়ে মারা গিয়েছেন। 

রাজ্য়ের স্বাস্থ্য় বুলেটিন বলছে,বর্তমানে রাজ্য়ে অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ২৮ হাজার ছাড়িয়েছে। তবে আসার খবর, সুস্থ হয়ে ওঠার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৮ শতাংশ। একদিনে টেস্ট হয়েছে রাজ্য়ে ৩৭ হাজারের বেশি৷ রবিবার রাজ্য স্বাস্থ্য ভবনের সংখ্য়া জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্য়ে আক্রান্ত হয়েছেন ৩,২৭৪ জন৷ শনিবার এই সংখ্যাটা ছিল,৩,২৩২ জনে৷ সব মিলিয়ে রাজ্য়ে এখন আক্রান্তের সংখ্য়া ১ ,৩৮,৮৭০ জন৷ সব মিলিয়ে রাজ্য়ে এখন মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাড়াল ২,৭৯৪ জন৷  অ্যাক্টিভ আক্রান্তের সংখ্যা ২৮,০৬৯ জন৷

সংখ্য়া বলছে, বর্তমানে রাজ্য়ে সুস্থ হয়ে ওঠার হার বেড়ে দাঁড়াল ৭৭.৭৮ শতাংশ৷ শনিবার যা ছিল ৭৭.৪১ শতাংশে৷ হিসাবের দিকে  তাকালে দেখা যাচ্ছে, যে ৫৭ জনের মৃত্যু হয়েছে তাদের মধ্যে কলকাতার মাত্র ৮ জন৷ উত্তর ২৪ পরগনার ১৮ জন রয়েছেন৷

এছাড়াও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩ জন,  হাওড়া থেকে ৫ জন, হুগলির ৬ জন রয়েছেন এই তালিকায়৷ পাশাপাশি পশ্চিম বর্ধমান থেকে ১ জন, পূর্ব বর্ধমানের ১ জন ছাড়াও পূর্ব মেদিনীপুরের ২ জন, পশ্চিম মেদিনীপুর ৩ জন, নদিয়ার ১ জন রয়েছেন। মুর্শিদাবাদ ১ জন৷ মালদা ৩ জন৷ উত্তর দিনাজপুর ২ জন৷ জলপাইগুড়ি ১ জন৷ কালিম্পং ১ জন৷ আলিপুর দুয়ার ১ জন৷ রাজ্য়ে একদিনে করোনা টেস্ট হয়েছে ৩৭, ১৪৯ টি টেস্ট হয়েছে৷