দিন কয়েক আগে কলকাতায় নিজেদের কয়েকজন কর্মীকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। সেই খবর স্বীকার করে নিল প্যান্টালুনস ফ্যাশন অ্যান্ড রিটেল লিমি়টেড। তবে জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার জন্য এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি বলেই জানাচ্ছে কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা, মুম্বইবাগে বিক্ষোভে যোগ দেওয়ার আগেই ফের গ্রেফতার কাফিল খান

জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার কারণে ২৫ জন কর্মীকে সাসপেন্ড করেছে প্যান্টালুনস ফ্যাশন অ্যান্ড রিটেল লিমি়টেড। এর প্রতিবাদে গত কয়েকদিন ধরে ধরনায় বসেছেন কর্মীরা। ট্যুইটারে এনিয়ে ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে নেটিজেনদের মধ্যে কড়া প্রতিক্রিয়া তৈরি হয়। জাতীয় সঙ্গীত গাওয়ার কারণে সাসপেনশনের সিদ্ধান্ত নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তাই নিয়েই এদিন প্রতিক্রিয়া দিয়েছে দেশের অন্যতম অগ্রণি এই বস্ত্রবিপণি।

প্যান্টালুনসের তরফে দাবি করা হয়েছে, কয়েকদিন আগে তাদের কয়েকজন কর্মীকে বরখাস্তা করা হয়েছে। এই পিছনে ওই কর্মীদের বিশৃ্ঙ্খলাকেই দাবি করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষের দাবি গ্রাহকেদর সঙ্গে খারাপ আচরণ, বিপণির কাজকর্মকে ব্যাহত করা, মহিলা সহকর্মীদের হুমকি ও নির্যাতনের মত নানা ঘটনায় নিরপেক্ষ ভাবে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: চাঁদে হানিমুনে যাওয়ার জন্য জীবনসঙ্গী খুঁজছেন, পাত্রী পাচ্ছেন না ধনকুবের পাত্র

বিবৃতিতে প্যান্টালুনসের তরফে জানান হয়েছে, গত ২০ বছর ধরে কলকাতায় ব্যাবসা করছে এই সংস্থা। পশ্চিমবঙ্গে তাদের কর্মীসংখ্যা ১২১৫। নামকরা এই ব্র্যান্ডের ভাবমূর্তি নষ্টের চেষ্টা চলছে বলে দাবি করা হয়েছে। 

 

 

তবে সাপপেনশন নিয়ে কর্মীদের মধ্যে যথেষ্ট অসন্তোষ তৈরি হয়েছে। এর প্রতিবাদে গত কয়েকদিন ধরে ধরনায় বসছেন সংস্থার কয়েকজন কর্মী। বিষয়টি নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদে নেমেছে  বাংলা পক্ষ নামে একটি সংগঠন।

প্যান্টানুলনের বাঙালি কর্মচারীদের প্রতি বৈষম্য মূলক আচরণ চলছে বলে  অভিযোগ তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচার চালাচ্ছে  এই সংগঠন। খুঁজে খুঁজে কেবল বাঙালি কর্মীদের ছাটাই করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তাদের। এই নিয়ে প্যান্টালুনসের বিপণির সামনেও প্রতিবাদে নেমেছেন তারা।