ফের লকডাউনে স্কুল ফি নেওয়াকে কেন্দ্র করে স্কুলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানালেন অভিভাবকরা। বুধবার সকাল থেকেই বউবাজারের সেন্ট মাইকেল স্কুলের সামনে অভিভাবকদের বিক্ষোভ চোখে পড়ে । অভিভাবকদের অভিযোগ,গত তিন মাস ধরে যে লকডাউন চলছে তার মধ্যেও স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের কাছ থেকে পুরো ফি দাবি করছে। যা অভিভাবকরা মানতে চাইছেন না । 

অভিভাবকদের দাবি, বর্তমানে এক কঠিন পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যাচ্ছে সমাজ। করোনা লকডাউনের জেরে অনেকেরই কাজ নেই। বেতনের অধিকাংশ কমে গেছে । এরকম একটা অবস্থায় অভিভাবকদের পক্ষে সম্ভব নয় স্কুলের পুরো ফি দেওয়া । অভিভাবকরা স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়েছে,তাদের সন্তানদের অর্থাৎ স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের গত তিন মাসের ফি মুকুব করা হোক। 

যদি তা না হয়, তাহলে স্কুলের ফি'র ৫০ শতাংশ অভিভাবকরা দিতে পারবেন। কিন্তু স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, কোনওভাবেই তা সম্ভব নয় ।সমস্ত ছাত্রছাত্রীকে পুরো ফি দিতে হবে। আর না হলে ছাত্র-ছাত্রীদের নাম স্কুলের রেজিস্ট্রেশন থেকে কেটে দেওয়া হবে। যার জেরে  স্কুলের সামনে বিক্ষোভে নেমেছেন অভিভাবকরা। বিষয়টি স্কুল কর্তৃপক্ষ গুরুত্ব দিয়ে না দেখলে বৃহত্তর আন্দোলনের হুমকি দিয়েছেন তারা। 

তবে লকডাউনে স্কুলের ফি নেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রাইভেট স্কুলগুলির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সাম্প্রতিককালে নতুন কিছু নয়। বিষয়টি কানে গিয়েছে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের । বহুবার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখতে বলছে রাজ্য় সরকার। তা সত্ত্বেও দেখা গিয়েছে,বেশিরভাগ প্রাইভেট স্কুল লকডাউনে ছাত্রছাত্রীদের স্কুল বাসের ফিও ধার্য করেছে। স্কুল বন্ধ  থাকলেও অভিভাবকদের এই ফি  দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। যার প্রতিবাদে বেশিরভাগ স্কুলের সামনে সরব হচ্ছেন অভিভাবকরা।