শাজাহান আলি : এলাকায় দিন দিন বেড়েই চলেছিল চুরির ঘটনা পুলিশ প্রশাসনকে বারবার জানিয়েও চুরি রুখতে পারেনি এলাকাবাসী তাই চুরি আটকাতেই সজাগ ছিল তারা। এমনকী  হাতেনাতে ফল পেল তারা। চুরি করতে এসে এলাকাবাসীদের হাতে ধরা পড়ল চোর। আর তখনই উত্তেজিত জনতা  চোরকে ধরে উত্তম-মধ্যম পিটুনি দিয়ে খুঁটিতে বেঁধে মাথা মাথা ন্যাড়া করে  পুলিশের হাতে তুলে দিল।ঘটনাটি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুরে।

রবিবার রাত্রি দাসপুর ২ পঞ্চায়েত সমিতির খুকুড়দহ গ্রাম পঞ্চায়েত সহ বেশ কয়েকটি দোকানে দরজা ভেঙে চুরি করে দুই দুষ্কৃতী। স্থানীয় মানুষ রাত্রিতেই ঘিরে ফেলে ওই দুই দুষ্কৃতী কে। স্থানীয় মানুষের চাপে পড়ে পালিয়ে যায় একজন, অপরজন ঝাঁপ দেয় জলেতে। রাতের অন্ধকার থাকার ফলে জলে ঝাঁপ দেওয়া দুষ্কৃতীকে খুঁজে পাচ্ছিল না গ্রামবাসীরা। গ্রামবাসীরা সারারাত অপেক্ষা করে দিনের আলোর জন্য।

দিনের আলো ফুটতেই দেখতে পাই জলের মধ্যে দাঁড়িয়ে রয়েছে এক দুষ্কৃতী। খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকার মানুষ ভিড় জমায়। জল থেকে তুলে নিয়ে আসার পর শুরু হয় মারধর তারপর মাথার চুল মুড়িয়ে দেওয়া হয়। খবর দেওয়া হয় দাসপুর থানায়। খবর পেয়ে দাসপুর থানার পুলিশ এসে ওই যুবককে গ্রেফতার করে। অপর এক দুষ্কৃতীর খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে দাসপুর থানার পুলিশ।