নজরে বিধানসভা ভোট। মহাষষ্ঠীর দিনে এবার রাজ্যবাসীর উদ্দেশ্যে ভার্চুয়ালি বাংলায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শুধু তাই নয়, উৎসবের আবহে সাংগঠনিক বৈঠকে করতে উত্তরবঙ্গে আসবেন অমিত শাহও। গেরুয়াশিবিরের দুই সেনাপতির জোড়া কর্মসূচি নিয়ে কৌতুহল তুঙ্গে রাজনৈতিক মহলে।

আরও পড়ুন: কৃষি আইনের সমর্থনে মিছিল, ভোটের মুখে 'শক্তিপ্রদর্শন' বিক্ষুদ্ধ বিজেপি নেতা-কর্মীদের

লোকসভা ভোটে এ রাজ্যে বিজেপি-এর অভাবনীয় সাফল্যে চমকে গিয়েছিলেন অনেকেই। একুশের বিধানসভা ভোটে কী হবে? মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া টক্কর দিতে প্রস্তুতিতে কোনও খামতি রাখতে রাজি নয় গেরুয়াশিবির। ভোটের লড়াইয়ে বাড়তি মাত্রা যোগ করেছে করোনা পরিস্থিতি। করোনা মোকাবিলায় সরকারের ব্য়র্থতা-সহ একাধিক ইস্যুতে সোচ্চার বঙ্গ বিজেপি-এর নেতারা। বিরোধীদের পাল্টা আক্রমণ শানাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরের নেতা-মন্ত্রীরাও। এই যখন পরিস্থিতি, ঠিক তখনই দুর্গাপুজোর আবহে মোদি-শাহের কর্মসূচি ঘোষণা করলেন দলের পশ্চিমবঙ্গে দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়।

আরও পড়ুন: ফের করোনার ছোবল তৃণমূলের অন্দরে, আক্রান্ত কেশপুরের বিধায়ক শিউলি সাহা

বিজেপি-এর কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কৈলাস বিজয়বর্গীয় জানিয়েছেন, ২২ অক্টোবর ভার্চুয়াল মাধ্যমে বাংলার মানুষের সঙ্গে কথা বলবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই পবিত্র উৎসবে বঙ্গবাসীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দেবেন তিনি। এমনকী, সবকিছু যদি ঠিকঠাক থাকলে, তাহলে পুজোর আদে এ রাজ্যে পা রাখবেন অমিত শাহ। বিজয়বর্গীয় জানিয়েছেন, দলে বৈঠকে যোগ দিতে উত্তরবঙ্গে আসবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দিনক্ষণ এখনও চূড়ান্ত হয়নি। তবে পুজোর আগের আসার চেষ্টা করছেন তিনি।ে