এবার বিজেপির মিছিল ঘিরে খণ্ডযুদ্ধের চেহারা নিল যাদবপুর। সোমবার বিজেপির নাগরিকত্ব সংশোধনী মিছিল আটকালে পুলিশের সঙ্গে বচসা বাঁধে বিজেপি নেতাদের। কিছুক্ষণের মধ্য়েই উত্তেজনার সৃষ্টি হয় যাদবপুরের সুলেখা মোড়ে।

বিরোধিতা বনাম বাস্তবায়ন। সোমবার সপ্তাহের শুরুতেই নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরোধিতায় রাস্তায় নামল তৃণমূল। পাল্টা ক্যাব বিলের বাস্তবায়নের জন্য় মোদী সরকারকে ধন্যবাদ জানাতে মিছিল শুরু করল বিজেপি। শাসক -বিরোধী মিছিলের তরজায় এদিন সরগরম রইল শহর।

বিজেপির অভিযোগ, সুলেখা মোড় থেকে তাঁরা নির্দিষ্ট জায়গায় মিছিল করার জন্য পাঁচদিন আগেই পুলিসের কাছে দরখাস্ত করেছিল। কিন্তু প্রত্যেকবারের মতো এবারও বিরোধী দলকে মিছিল করার অনুমতি  দেয়নি পুলিশ। বিজেপি নেতা অনুপম অধিকারীর অভিযোগ, সারা রাজ্য়ে আগুন জ্বলছে, সেখানে হিংসাত্বক পরিস্থিতি  দেখেও চুপ রয়েছে পুলিশ। রাষ্ট্রীয় সম্পত্তি নষ্ট হতে দেখেও কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না প্রশাসন। অথচ সুলেখা মোড়ে বিজেপির মিছিল দেখেই আটকাতে চলে আসল পুলিশ। বিজেপি দেখলেই সক্রিয় হয়ে যাচ্ছে প্রশাসন। বিজেপির অভিযোগ, এদিন মিছিল আটকাতে দলের কর্মীদের ও পর লাঠিচার্জ  করে পুলিশ । রেয়াত করা হয়নি দলের মহিলা কর্মীদেরও। তা সত্ত্বেও ব্য়ারিকেড ভেঙে এগোতে  সক্ষম হয় দল। 

এদিকে নাগরিকত্ব আইনের প্রতিবাদে এদিন কলকাতায় তৃণমূলের মহামিছিল শুরু হয় রেড রোড থেকে। মিছিলের নেতৃত্ব দেন মুখ্য়মন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়। রেড রোড থেকে শুরু হয়ে মিছিল যাবে জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ি পর্যন্ত। মঙ্গল ও বুধবারও একই ভাবে যাদবপুর ঙ্গলবার মিছিল হবে যাদবপুর এইট বি বাসস্ট্যান্ড থেকে যদুবাবুর বাজার পর্যন্ত। বুধবার হাওড়া  ময়দান থেকে এনআরসি ও ক্য়াব-এর প্রতিবাদে মিছিল করবেন তৃণমূল নেত্রী।