দীর্ঘ লকডাউনে  চালু শুধু চালু ছিল জরুরী ভিত্তিক বিমান পরিষেবা। এবার লকডাউনের পর  আন্তঃরাজ্য বিমান পরিষেবা চালু হলেই মেনে চলতে হবে একাধিক বিধিনিষেধ। করোনা সংক্রমণ রুখতে বিমানবন্দরে একগুচ্ছ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে কলকাতা সহ দেশের অন্য়ান্য় বিমানবন্দরগুলিতেও। 

আরও পড়ুন, শনিবার রাতেই আছড়ে পড়বে 'আমফান', বদলাতে চলেছে রাজ্য়ের আবহাওয়া, সতর্কবার্তা হাওয়া অফিসের
 
কলকাতা নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসু আন্তর্জাতিক বসু আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে দৈনিক প্রায় ৭৫ হাজার মানুষ যাতায়াত করেন। লকডাউন চলাকালীন একাধিকবার বিমানবন্দর জীবাণুমুক্ত করার কাজ হয়েছে। এখন থেকে বিমানবন্দরের প্রত্যেক যাত্রীদের মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। হ্যান্ড স্যানিটাইজার নিয়ে প্রবেশ করতে হবে। কর্তৃপক্ষের তরফে বলা হয়েছে, সর্বাধিক ৩০০ মিলিলিটার স্যানিটাইজার ব্যাগে রাখতে পারবেন প্রত্যেক যাত্রী। এবং সবাইকে মাস্ক পরে বিমানবন্দর চত্বরে ঢুকতে হবে। এর পাশাপাশি জানানো হয়েছে, বিমানবন্দরে সহযাত্রীদের সঙ্গে কম করে চার ফুট দূরত্ব রাখতে হবে। বোর্ডিং পাসের একটি প্রিন্টআউট সঙ্গে রাখতে হবে। বিমানবন্দরের কর্মীরা মোবাইল বা যাত্রীদের কোনও সামগ্রী সরাসরি না ছুঁয়ে দূর থেকে সেই বোর্ডিং পাস দেখে নিতে পারেন।জানা গিয়েছে, বিমানবন্দরে এখন থেকে অতিরিক্ত ভিড় নিয়ন্ত্রণ করা হবে। যাত্রীদের বসার জায়গায় দূরত্ব রাখার জন্য একটি করে চেয়ারে লাল ফিতে দিয়ে বেঁধে দেওয়া হয়েছে। মেঝেতে দাগ কেটে নির্দিষ্ট করে দেওয়া রয়েছে দূরত্ব।

আরও পড়ুন, কলকাতা ছেড়ে বাড়ি ফিরলেন ভিনরাজ্য়ের বাসিন্দা ১৮৫ নার্স, সঙ্কটে রাজ্যের বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা

অপরদিকে,  বিমানবন্দরের নিরাপত্তার দায়িত্বে রয়েছে সিআইএফ। তাঁরাও উপযুক্ত পিপিই পরে কাজ করছেন। বলে  বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের তরফে সিআইএসএফকে জানানো হয়েছে,কোনও যাত্রীর সংস্পর্শে না এসে দূর থেকে তল্লাশি বা নজরদারি চালাতে। টিকিট, পাস ইত্যাদি নিজেরা স্ক্যান করে নিচ্ছেন যাত্রীরা। দূরে রাখা একটি অন্য স্ক্যানারে সেই সেই ছবি ফুটে উঠছে। সেখানে দাঁড়িয়ে বিমানবন্দর কর্মীরা তা দেখে শনাক্ত করতে পারছেন করতে পারছেন যাত্রীকে।

 

 

কলকাতা মেডিক্যালের ভিতরের রাস্তায় অবহেলায় মৃত্যু এক বৃদ্ধের, করোনা আতঙ্কে দেহ ছুঁলেন না কেউ

অস্ত্রোপচারের পর রোগীর রিপোর্ট পজিটিভ, করোনা আক্রান্ত মুকুন্দপুর আমরির এক চিকিৎসক ও নার্স

কোভিড হাসপাতালে স্বাভাবিক মৃত্য়ুতেও পরিবার চাইলে সৎকার করবে কলকাতা পৌরসভা, জানালেন ফিরহাদ

করোনা আক্রান্ত প্রাণ হারালেন এবার রাজ্যের এক আইনজীবী, এদিকে আইসোলেশনে তাঁর স্ত্রী